যশোরে স্বামীকে ঘরে আটকে রেখে স্ত্রীর আত্মহত্যা

0
14

যশোরে স্বামীকে ঘরে আটকে স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা । পুলিশের তদন্তেও এমটিই তথ্য মিলেছে। ঘটনাটি ঘটেছে যশোর শহরের ঘোপ বুড়ির বাগান এলাকায় রোববার দিবাগত রাতে। নিহত শারমিন আক্তার ওই এলাকার সোহাগ হোসেনের স্ত্রী। সোমবার ভোরে কোতোয়ালি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যেয়ে লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানায়, তারা নব দম্পত্তি। মাসখানেক আগে ওই এলাকায় একটি ঘর ভাড়া নিয়ে স্বামী স্ত্রী বসবাস করেন। পাশের ঘরের একজন সোহাগের ঘরের বাড়ান্দায় শারমিনের গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান। পরে তিনি আশপাশের লোকজনকে খবর দেন। ডাকচিৎকারে ঘরের ভেতরে থাকা সোহাগের ঘুম ভেঙে যায়। সোহাগ বাইরে বের হতে গেলেই দেখে তার ঘরের দরজায় বাইরে থেকে সিটকিনি দেয়া। এসময় স্থানীয়রা ৯৯৯ নাম্বালে কল করলে তাৎক্ষনিক পুলিশ আসে। পরে তারা লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। একই সাথে সোহাগকেও হেফাজতে নেন।

এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মনিরুজ্জামান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে শারমিন আত্মহত্যা করেছে। স্বামী সোহাগ ঘুমিয়ে গেলে সে ঘরের বাইরে থেকে সিটকিনি আটকে দিয়ে বারান্দায় যেয়ে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। তিনি আরও বলেন, সোহাগকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয়া হয়েছে ।

এদিকে, অপর একটি সূত্র জানায় সোহাগের সাথে শারমিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। অল্প কয়েকদিন হয়েছে তারা বিয়ে করেছেন। কিন্তু তাদের পরিবার এ বিয়ে স্বাভাবিক ভবে নেয়নি। এসব বিষয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য চলছিলো। তার জেরেই শারমিন আত্মহত্যা করেছেন।