চিকিৎসকের চেম্বারে আপন ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রী কর্তৃক ভাংচুর লুটপাটের অভিযোগ

0
11

বিশেষ প্রতিনিধি

চিকিৎসকের চেম্বার ভাংচুর এবং চিকিৎসা সরঞ্জামাদি লুটের অভিযোগে আপন ছোট ভাই ও ভাইয়ের স্ত্রীসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন যশোর শহরতলীর খোলাডাঙ্গা এলাকার ডা. খন্দকার সালাহ উদ্দিন। অভিযুক্তরা হচ্ছে, সহোদর সাঈদ আহমেদ ইউনুচ, তার স্ত্রী হিরা বেগম, আরবপুর খোয়ারাস্তা মসজিদের পাশে মৃত বেলায়েত হোসেনের ছেলে ফিরোজ ওরফে পিরু ও জয়নাল মিয়ার ছেলে খোকন। বাদি খোলাডাঙ্গা এলাকার মৃত খন্দকার আব্দুল জলিলের ছেলে।

অভিযোগে ডাক্তার সালাহউদ্দিন উল্লেখ করেন, গত ২৮ এপ্রিল সকাল ৯টায় তিনি দেখতে পান আসামিরা খোলাডাঙ্গা গ্রামের তাদের দোতলা বাড়ির নিচতলার একটি দোকান ঘর যা তার চেম্বার হিসাবে ব্যবহার হয়। সেটি ভাংগার চেষ্টা করছে। তিনি ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তার বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করলে তাদের মারতে উদ্যোত হয়। তারা দৌড়ে পালিয়ে জীবন রক্ষা করেন এবং পুলিশে সংবাদ দেন।

পরে পুলিশ বেলা সাড়ে ১২টায় ঘটনাস্থলে এসে দেখেন তার চেম্বারের তালা ভাঙ্গা। ভেতরে রাখা মালামালের ব্যাপক ক্ষতি করা হয়েছে। চেম্বারে রাখা একটি আল্ট্রাসনো মেশিন, একটি মাইক্রোস্কপ মেশিন, একটি ইসিজি মেশিন এবং বেশে কিচু সার্জিক্যাল যন্ত্রপাতি নাই। যার আনুমানিক মূল্য ১৫ লাখ টাকা। আসামিরা তার চেম্বার দখলের জন্য বিভিন্ন সময় পায়তারা করে আসছিল। উল্লেখিত ঘটনার দিন তারা চেম্বার ভেঙ্গে ১৫ লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে কোতয়ালি থানায় এসআই জয়বালা জানিয়েছেন, একটি লিখিত অভিযোগ হাতে পেয়েছি। ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্তকরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।