যশোরে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ, থাকবে আরো দুইদিন

0
16

সত্যপাঠ ডেস্ক

টানা দুই দিনের প্রচণ্ড গরমে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। ঘরের বাইরে বের হওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, সোমবারও (২৫ এপ্রিল) যশোরসহ কয়েকটি জেলা ও তিন বিভাগের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। এ পরিস্থিতি অন্তত আরো দুইদিন অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী, দেশের যশোর, রাজশাহী, পাবনা এবং চুয়াডাঙা অঞ্চলে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী ও পটুয়াখালী অঞ্চলসহ ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অবশিষ্টাংশের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের মৃদু ও মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ জানান, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা বাড়তি থাকবে। এই তাপপ্রবাহ স্বাভাবিক এবং গ্রীষ্মকালীন। আগামী তিন দিন অন্তত এ পরিস্থিতি বিরাজ করবে। বর্ধিত পাঁচ দিনে গিয়ে বৃষ্টির প্রবণতা দেখা দেবে।

এদিকে রবিবার (২৪ এপ্রিল) খুলনা বিভাগের চুয়াডাঙায় ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হলেও সোমবার (২৫ এপ্রিল) একদিনের ব্যবধানে তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ঠেকেছে। রাজশাহী বিভাগে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ঈশ্বরদিতে ৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকা বিভাগের ফরিদপুরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। সকালে ঢাকায় বাতাসের আর্দ্রতা ছিলো ৮২ শতাংশ।

এই তাপপ্রবাহের মধ্যেই বৃষ্টিরও পূর্বাভাস রয়েছে। পূর্বাভাস অনুযায়ী, সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলী চমকানোসহ বৃষ্টি ও বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে। এদিকে পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিন বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।