বাঘারপাড়ায় মাটি চাপা পড়ে ১০ বছরের কিশোরের মৃত্যু

0
19

বসুন্দিয়া প্রতিনিধি

বাঘারপাড়া উপজেলার একটি গ্রামে পুকুর খননের মাটি ধসে ১০ বছরের এক কিশোরের মৃত্যু ঘটনা ঘটেছে ২৪ এপ্রিল রোববার, গ্রামবাসী ও ফায়ার সার্ভিস চার ঘন্টা চেষ্টার পর রাত সাড়ে আটটার দিকে মিললো মৃতদেহ। সে উপজেলার মামুালীপুর গ্রামের জাহিদ বিশ্বাসের ছেলে রামিম (১০)।

সরেজমিনে দেখতে গেলে লোমহর্ষক বর্ননা দেন রামিমের আর এক বন্ধু দুরন্ত (৮) সে জানায়, বাড়ির দক্ষিণ পাশে একটি মজা পুকুর খনন কাজ চলিতেছে। ওই পুকুরের ভিতরে বালুর পরে প্রতিদিনই খেলাধুলা করি অনেক বন্ধুদের নিয়ে।

রোববার দুপুরের পর রামিম আর আমি মাটি খনন দেখতে যায়। রামিম পুকুরের ভিতর নেমে বালু নিয়ে খেলছিল, হঠাৎ আচমকা উপর থেকে বালু মাটি ভেঙ্গে পড়ে ওর উপরে। এই দেখে আমি চিৎকার করি, সঙ্গে সঙ্গে আশপাশের মানুষ ছুটে ঘটনা স্থলে। এরপর গ্রামের মানুষের মাঝে খবর ছড়িয়ে পড়লে সকলে কোদাল, সাবল দিয়ে মাটি খুড়তে থাকে।

গ্রামবাসী জানায়, ঘটনাটি বাঘারপাড়া থানা ফায়ার সার্ভিসকে জানালে বিকাল চারটার দিকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা এসে চেষ্টা চালায় মৃতদেহ উদ্ধার করার জন্য। দীর্ঘ চার ঘন্টা চেষ্টার পর রাত সাড়ে আটটার দিকে মিললো রামিমের মৃতদেহ।

গ্রামবাসী আরো বলেন, দোহাকুলা ইউনিয়ন ইউপি সদস্য জসীম উদ্দিনের মজা পুকুরের খনন কাজ চলছিলো। এ এঘটনা ঘটার পর মাটি কাটা গাড়ির চালক সহ অন্নান্য সহযোগীরা দ্রুত পালিয়ে যায়। মৃত তামিমের পিতা জাহিদ বিশ্বাস বলেন, আমার সন্তান আমাকে অকালে ছেড়ে চলে গেলো। এ বড়ো কষ্ট যার সন্তান চলে যায় সেই শুধু বুঝতে পারে। বাঘারপাড়া থানা সূত্রে জানা গেছে, এটা মাটি চাপার বিষয়, একটি অপমৃত্যু।