নওয়াপাড়ায় মোটরসাইকেল আটক করায় সাব ইন্সপেক্টর লাঞ্ছিত, আটক ৪

0
37
Exif_JPEG_420

প্রিয়ব্রত ধর, সুন্দলী

অভয়নগর উপজেলায় নওয়াপাড়া স্বাধীনতা চত্বরে সকাল ১০.৩০ মিনিটে অবৈধ ও কাগজপত্রবিহীন মোটরসাইকেল আটক অভিযানে ধরপাকড়ের একপর্যায়ে, অভয়নগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ্ ফরিদ জাহাঙ্গীরের ছেলে শাহ্ আবিদ কামরানের মোটরসাইকেল আটক করলে এ লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটে।

মোটরসাইকেল আটক তুহিন ও ভুক্তভোগী অনেকে অভিযোগ করে বলেন, নওয়াপাড়া স্বাধীনতা চত্বরে প্রায় প্রতিদিন যশোর থেকে আসা ট্রাফিক বিভাগের পুলিশ এসে মোটরসাইকেল ধরপাকড়ও মামলাসহ বিভিন্ন রকমের হয়রানি করে।

লাঞ্ছিত টাউন সাব ইনস্পেক্টর সারোয়ার হোসেন বলেন, অবৈধ ও কাগজ বিহীন মোটরসাইকেল অভিযানে আসামির মোটরসাইকেলের কাগজপত্র দেখাতে ব্যার্থ হয়ে, উপজেলা। আমি তাকে দায়িত্ব পালনের কথা বললে, সে ক্ষিপ্ত হয়ে আসামি সহ তার সাথে থাকা ৩/৪ জন আমাকে লাঞ্ছিত করে। অবস্থা খারাপ দেখে আমি অভয়নগর থানায় ফোন করলে পুলিশ এসে আসামিসহ ৩/৪জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। আমি সরকারি কাজে বাধা ও আমাকে লাঞ্ছিত করার শাস্তি দাবি করি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামিগন থানায় আটক অবস্থায় আছেন।

এদিকে অভয়নগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ্ ফরিদ জাহাঙ্গীরের ছেলে শাহ্ আবিদ কামরান অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।