যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এক কিশোরের আত্মহত্যা

0
30

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে বন্দি জহুরুল ইসলাম (১৬) নামে এক কিশোর রহস্যজনক ঘটনায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার ১৪ ফেব্রুয়ারী বেলা ১১টায় ওই কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে। জহুরুল ইসলাম পাবনার আতাইখোলা উপজেলার বামনডাঙ্গা গ্রামের জেলাল মন্ডলের পুত্র।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক মঞ্জরুল ইসলাম বেলা পৌনে ১২ টায় জহুরুল ইসলামকে যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এ সময় জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ আহমেদ তারেক শামস তাকে মৃত ঘোষণা করে বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই জহুরুলের মৃত্যু হয়েছে। তার গলায় ফাঁস দেয়ার দাগ রয়েছে।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক মঞ্জরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ব্যারাকের ফ্যানের সাথে গামছা পেচিয়ে জহুরুল ইসলাম গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। তখন উপস্থিতি বন্দি অন্যান্য কিশোরেরা জানতে পেরে মঞ্জরুল ইসলামকে খবর দেয়। এ সময় তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে কিশোরকে উদ্ধার করেন এবং তাৎক্ষণিক তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির জন্য আনা হলে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসিজি ও অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

তিনি আরো জানিয়েছেন, কিশোর জহুরুল ইসলাম পাবনা জেলার আতাইকুলা থানার ২০২১ সালের ২১ নভম্বর তারিখের একটি হত্যা মামলা আসামি। যার নাম্বার ৮, ধারা ৩০২, ২০১, ৩৭৯, /৩৪ যার জিআর নং ১৪১। তবে আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে ওই কর্মকর্তা জানাতে পারেননি। যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এর আগেও এ রকম একাধিক ঘটনা ঘটেছ। এখানকার পরিস্থিতি নিয়ে স্থানীয় লোকজনের মধ্যে চরম অসন্তোষ রয়েছে। শিশু উন্নয়ন কর্মে কান্ডে অগ্রনী ভূমিকা রাখতে পারবেন এমন কর্মকর্তার বিশেষ প্রয়োজন বলে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিমত ব্যক্ত করেন।