কেশবপুরের মুলগ্রামে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ন নির্বাচনকল্পে পুলিশের নির্বাচনী ব্রিফিং

0
67

কেশবপুর প্রতিনিধি

৫ম ধাপে গত ৫ জানুয়ারী কেশবপুর উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদর ইউনিয়নে ভোট কাটাকাটির অভিযোগে নতুন মুলগ্রামে স্থগিত ভোটকেন্দ্রে পুনরায় ভোটারদের ভোট প্রয়োগ আগামীকাল ৭ ফেব্রুয়ারী (সোমবার) অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে ভোটকেন্দ্রে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ন পরিবেশে নির্বাচনকল্পে জেলা পুলিশের নির্বাচনী ব্রিফিং এবং প্যারেড অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৬ ফেব্রুয়ারী (রবিবার) সকালে কেশবপুর থানা চত্বেরে নির্বাচনে নিয়োজিত পুলিশ অফিসার ফোর্সদের উদ্দেশ্যে দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন যশোর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, সদর ইউনিয়ন পরিষদের স্থগিত হওয়া ভোটকেন্দ্রের নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছ করতে পুলিশের পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে হবে। কোন অপশক্তি, ভোটারদের মাঝে ভয়ভীতি, নির্বাচনী এলাকায় যেকোন সহিংসতা প্রতিরোধে পুলিশের আইনি ক্ষমতা প্রয়োগ করতে হবে। পুলিশ, আনসার ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর যারা নির্বাচনের দায়িত্বে থাকবেন তারা সততার সহিত দায়িত্ব পালন করবেন। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য নির্বাচনে পর্যাপ্ত সংখ্যক অফিসার ও ফোর্স নিয়োগ করা হয়েছে। কোন ভাবেই বহিরাগত সন্ত্রাসীরা যেন নির্বাচনী এলাকায় প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য পুলিশের ব্যাপক নজরদারীতে রাখতে হবে।

ইউনিফর্ম পুলিশের পাশাপাশি ২টি মোবাইল টিম, ২টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, ডিবি পুলিশের ২টি টিম এবং সাদা পোশাকে ডিএসবি নজরদারি থাকবে।

এছাড়াও উপজেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জাহাঙ্গীর আলম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নাভারণ সার্কেল) জুয়েল ইমরান, সহকারী পুলিশ সুপার (মনিরামপুর সার্কেল) আশেক সুজা মামুন, কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ বোরহান উদ্দীন, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান সহ নির্বাচনে দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত বিভিন্ন পদমর্যাদার অফিসার ও ফোর্সবৃন্দ।