স্বামীর উপর অভিমান করে গৃহবধূর আত্মহত্যা

0
66

মিজানুর রহমান, মনিরামপুর

মণিরামপুরে পারিবারিক কলহের জেরসহ করোনার টিকার কার্ড এনে না দেয়ায় স্বামীর উপর অভিমান করে হোসনেয়ারা খাতুন (২৩) নামে এক সন্তানের জননী আত্মহত্যা করেছেন। নিহত হোসনেয়ারা উপজেলার সদর ইউনিয়নের জালঝাড়া গ্রামের শফি খাঁ’র কন্যা ও পাশ্ববর্তী দেবীদাসপুর গ্রামের কৃষক আবুল কালাম আজাদের স্ত্রী। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্বামীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য থানা হেফাজতে নিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, আবুল কালাম আজাদের সাথে হোসনেয়ারার বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় সাংসারিক গোলযোগ সৃষ্টির কারনে স্থানীয়ভবে কয়েক দফা শালিসী সভা হয়। এছাড়া হোসেনেয়ারা স্বামী সংসার থেকে কয়েকবার পিত্রালয়ে চলে গেলেও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মাধ্যমে সে পুনরায় স্বামীর সংসারে ফিরে যায়। সর্ব শেষ হোসেনেয়ারা তার স্বামীকে টিকার কার্ড এনে দিতে বললে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়।

এ ঘটনার জের ধরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

মণিরামপুর থানার এসআই সোমেন বিশ্বাস জানান, গৃহবধূ হোসনেয়ারার মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানতে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই হাসান আলী বাদী হয়ে প্রাথমিকভাবে অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছেন।