মণিরামপুরে কথিত চিড়িয়াখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান, ১২টি বন্যপ্রাণী জব্দ

0
84

মনিরামপুর প্রতিনিধি

মণিরামপুরে অবৈধভাবে পরিচালিত কথিত একটি মিনি চিড়িয়াখানায় র‌্যাব-পুলিশের সহায়তায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে জেল-জরিমানা করেছেন। এসময় খুলনা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা ১২ প্রকারের বন্যপ্রাণী জব্দ করে নিজেদের হেফাজতে নেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার রাজগঞ্জ ঝাঁপা বাঁওড় সংলগ্ন এলাকায় মণিরমপুরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হরেকৃষ্ণ অধিকারী এ অভিযান পরিচালনা করেন।

জানাযায়, কেশবপুর উপজেলার সাগরদাঁড়ি এলাকার আনিসুর রহমান নামের এক ব্যক্তি কোন প্রকার আইনী অনুমোদন ছাড়াই মণিরামপুরের উক্ত ঝাঁপা বাঁওড় পাড়ে ৫/৬ বছর ধরে ঝুমা নামে মিনি চিড়িয়াখানার কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, ২০ টাকা টিকিটের মাধ্যমে স্থানীয় একটি চক্রকে ম্যানেজ করে কথিত মিনি চিড়িয়াখানার মধ্যে নানা ধরনের অপরাধ কর্মকান্ড চালানো হত।

মণিরামপুর থানার এসআই আক্তারুল ইসলাম জানান, ওই মিনি চিড়িয়াখানা পরিচালনার সময় মালিক আনিসুর রহমানের শশুর সাতক্ষীরা কলারোয়ার তালেব সরদারের পুত্র সামসুদ্দীন সরদারকে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডসহ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে দন্ডপ্রাপ্ত সামসুদ্দীনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

জানাযায়, কথিত ঝুমা মিনি চিড়িয়াখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানকে মণিরামপুর থানা পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব সদস্যরা সহায়তা প্রদান করেন।