মাগুরাতে দু’দিনের বৃষ্টিতে নিম্নানঞ্চল প্লাবিত, হাজার হাজার হেক্টর জমির রবিশস্য ও বোরো ধানের বীজতলা নষ্ট

0
21

নওয়াব আলী, মাগুরা

মাগুরাতে দু’দিনের বৃষ্টিতে নিম্নানঞ্চল প্লাবিত। হাজার হাজার হেক্টর জমির রবিশস্য ও বোরো ধানের বীজতলা নষ্ট। ৫ ডিসেম্বর দুপুরের পর থেকে ৬ ডিসেম্বর দিনভর বৃষ্টিতে মাগুরা সদর, শালিখা, মহম্মাদপুর ও শ্রীপুর উপজেলার নিম্ন অঞ্চল প্লাবিত হয়ে হজার হাজার একর রবিশস্য, বোরো ধানের বীজতলা, দেরিতে কাটা আমন ধান ও সবজি নষ্ট হয়েছে। গত দশ বছরে ঝড়-বৃষ্টতে কৃষকের এত ক্ষতি হয়নি!

মাগুরা সদরের পিয়াজ চাষী শিরিন বিশ্বাস, শালিখার ছাবড়ি গ্রামের রমেশ সরকার, শরুশুনা গ্রামের কবির হোসেন। চটারবিল ও গোপালগ্রামের বিল খনন করা জরুরী মনে করেন বাবু বিশ্বাস। মহম্মাদপুর উপজেলার চাকুলিয়ার ওবায়দুর রহমান, নহাটার ইমরান, শ্রীপুরের আমতোলের স্বপন সকলেই এ বৃষ্টিতে তাদের ব্যপক ক্ষতির কথা জানান।

শালিখা উপজেলার ৫ নং শালিখা ইউনিয়নের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মেজবাহুল হোসেন বলেন, অসময়ের অতিবৃষ্টিতে কৃষকের রবিশস্য সহ ফসলের ব্যপক ক্ষতি হয়েছে আমরা বিষয়টি কতৃপক্ষকে জানিয়েছি।

মহম্মদপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুর সোবহানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান নিদিষ্ট সময়ে মধ্য ৯০ শতাংশ ধান কৃষকের ঘরে উঠছে। বাকিরা বিছালী করার জন্য ধান কেটে মাঠে রেখে দিয়েছিল। হঠাৎ করে নিম্নচাপের কারণে এই ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন তারা।

এ ব্যপারে নোঙ্গর বাংলাদেশের মাগুরা প্রতিনিধি শিক্ষক ও গবেষক শ্রীইন্দ্রনীল বিশ্বাস ক্ষতিগ্রস্ত কৃষিকদের প্রোণোদনা দেওয়ার জোর দাবী জানান।