শার্শায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনি অফিসে ভাংচুর, ৭ কর্মিকে পিটিয়ে জখম

0
71

বেনাপোল প্রতিনধি

যশোরের শার্শায় আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কায়বায় নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাসান ফিরোজ আহম্মেদ টিংকুর কর্র্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলতাফ হোসেনের আনারস প্রতিকের নির্বাচনি অফিসে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও ৭জন কর্মিকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ উঠেছে। আহতদের দুই জনের অবস্থা আশংক জনক হওয়ায় তাদেরকে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নাভারন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন রাড়িপুকুর গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে সোহেল হোসেন (২৮) ও একোব্বার খাঁ’র ছেলে হাবিবুর রহমান সজিব (১৭), কবির উদ্দিন, (৪৮), মনির”ল ইসলাম মনির (৪৫), মিঠু (২০)। এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলতাফ হোসেনের পক্ষ থেকে শার্শা থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আলতাফ হোসেন অভিযোগ করে বলেছেন নৌকা প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থক মিল্টন, সাগর, হানিফ, বোরহান, জসিম, সজিব, আমির”ল, জাহাঙ্গীর, কাজল, মিঠু, রুবেল সহ ২০/২৫জন কায়বা ইউনিয়নের, রুদ্রপুর, দিঘা, চালিতাবাড়িয়া, কায়বা, পাড়ের কায়বা মহিষা, বায়কোলাসহ বিভিন্ন গ্রামে গত শনিবার রাতে তার আনারস প্রতিকের নির্বাচনি অফিসে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও ৭জন কর্মীকে পিটিয়ে জখম করেছে। আলতাফ হোসেন জানান, নৌকায় ভোট দিতে সাধারন ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে। ভয় দেখানো হচ্ছে কেন্দ্রে গেলে সামনে নৌকায় ভোট দিতে হবে। যে কারনে সাধারন ভোটাররা ভোট দিতে কেন্দ্রে যেতে ভয় পাচ্ছে। স্বতন্ত্র প্রার্থী আলতাফ হোসেন আরও বলেন তার বিজয় নিশ্চিত জেনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী নানান ষড়যন্ত্র করছে। তার কর্মীদের উপর মারপিট করছে। এ ছাড়া কায়বা ইউনিয়নে অস্ত্রধারী, চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের নির্বাচনের আগে আইনের আওতায় আনার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। আলতাফ হোসেন এ বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

এ ব্যাপারে আনারস প্রতিকের কর্মী ও সমর্থক পল্লী চিকিৎসক আফিল উদ্দিন, কৃষক ছিদ্দিক হোসেন, মুনছুর আলী সহ সাধারন কর্মীরা জানান, কায়বা ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের ভোট না থাকায় নৌকা সমর্থক কিছু কর্মী সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাচ্ছে। তারা বলেন পুলিশের সামনে এমন তান্ডব চললেও পুলিশ নিরব ভুমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে টিংকু চেয়ারম্যান জানান, আমার কোন লোক স্বতন্ত্র প্রার্থী আলতাফ এর অফিস ভাংচুর বা অগ্নি সংযোগ করেনি। তিনি বলেন রাত ১টার দিকে একজন লোক মোটর সাইকেলে এসে আনারসের অফিসে আগুন দিয়ে পালিয়ে গেছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সঠিক না। বরং তার একজন কর্মীকে তারা মারপিট করেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শার্শা থানার অফিসার ইন চার্জ বদর”ল আলম খান জানান, স্বতন্ত্র প্রাথীর পক্ষে অভিযোগ পেয়েছি। আইন শৃঙ্খলা শান্তিপুর্ন রাখতে পুলিশি নজরদারী বাড়ানো হয়েছে। তিনি জানান অভিযোগ তদন্ত করে অপরাধীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।