আশাশুনির শ্বেতপুরে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বহিস্কারের দাবীতে মানববন্ধন

0
21

আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার শ্বেতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুমিতা চৌধুরী বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, কূকীর্তিসহ নানা অভিযোগ এনে অবিলম্বে তাকে বহিস্কারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে স্কুলের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

এলাকার সাধারণ নারী পুুরুষসহ অভিভাবকদের অংশ গ্রহনে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন, ইউপি সদস্য লিয়াকত আলি বিশ্বাস, সাবেক সভাপতি আক্তারুল ইসলাম, অভিভাবক প্রভাষ কুমার চুটু, আমিরুল ইসলাম, সদস্য আঃ মান্নান, রেহেনা খাতুন, নাজমুন নাহার, লিপি ঘোষ প্রমুখ। বক্তাগণ বলেন, স্কুল পরিচালনা কমিটি, অভিভাবক, শিক্ষকদের সাথে প্রধান শিক্ষক নানা অসৌজন্যতা, অভদ্রতা সৃষ্টি, অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে স্কুলের সার্বিক পরিবেশকে বিষিয়ে তোলাসহ স্কুলের পরিবেশ ও উন্নয়ন কার্যক্রম নষ্ট করেছে।

স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আহসান হাবিব তার বিরুদ্ধে ১১ দফা অভিযোগ এনে প্রতিকার প্রার্থনা করে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগ তদন্ত হয়েছে। অভিযোগ প্রমানিত হয়েছে। এনিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে রিপোর্ট হয়েছে। তদন্তের পরও তিনি ম্যানেজিং কমিটির মিটিং ডাকেননি, কোন হিসাব দেননি। ভুয়া ভাউসার দেখিয়ে হাজার হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন। যখন তার দুর্নীতি, অনিয়ম ও আচার আচরনে শিক্ষকসুলভতা ছিলনা প্রমানিত হয়েছে। এসব ঘটনা, তদন্ত হলেও কমিটি বা কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ খাড়া করতে পারেননি।

দীর্ঘ ৬ মাস পর এসে “মাছ না পেয়ে ছিপে কামড়” দেওয়ার মত পথে হাটতে শুরু করেছেন। এবং নিজের দুর্নীতি ও কূকীর্তি ধামাচাপা দিতে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, গ্রামের সর্বজন প্রিয়, সুচরিত্রের অধিকারী, ন্যায়পরায়ন ও একটি প্রতিষ্ঠিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সুপরিচিত সহকারী শিক্ষক আহসান হাবিবের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ অভিযোগ উত্থাপন করে থানায় অভিযোগ ও পত্রপত্রিকায় খবর প্রকাশ করিয়েছেন। দুর্নীতিবাজ ও কূকীর্তির অধিকারী প্রধান শিক্ষক সুমিতাকে অবিলম্বে স্কুল থেকে বহিস্কার ও তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here