মণিরামপুরে ছদ্মবেশে মাদক আটকের সময় কারবারীদের হামলায় পুলিশ সদস্য আহত : ধারালো অস্ত্র উদ্ধারসহ এক নারী কারবারী আটকের দাবী

0
87

মণিরামপুর প্রতিনিধি

মণিরামপুরে ছদ্মবেশে মাদকসহ এক কারবারীকে হাতে-নাতে আটকের সময় মাদক কারবারীদের হামলায় রবিউল ইসলাম নামে এক পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যকে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাদক কারবারী পরিবারের হোতা লুৎফর রহমানকে আটক করতে না পারলেও তার স্ত্রী রাবেয়া বেগমকে আটক করে। এসময় ওই বাড়ী থেকে ধারালো অস্ত্র ৩টি চাপাতি উদ্ধারের দাবী করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার রাজগঞ্জ বাজার সংলগ্ন মাদক বিক্রেতার বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম।

পুলিশের দাবী, উপজেলার রাজগঞ্জ বাজার সংলগ্ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পাশে একটি বাড়ীতে এবং পাশ্ববর্তী এলাকায় লুৎফর রহমান ও তার পুত্র ফয়সালসহ পরিবারের অন্যান্যরা দীর্ঘদিন ধরে গাঁজা ও ইয়াবাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য বিক্রি করে আসছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজগঞ্জ পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের এএসআই ইমরান হোসেনসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য ওই মাদক কারবারীদের বাড়ীর আশপাশে অবস্থান নেয়।

এক পর্যায় ছদ্মবেশে কনস্টেবল রবিউল ইসলাম মাদক কারবারী লুৎফর রহমানের বাড়ীতে ঢুকে একজনকে মাদকসহ হাতে-নাতে ধরে ফেলে। এসময় লুৎফর ও তার পুত্র ফয়সালসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য রবিউল ইসলামকে এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করে ধৃত ব্যক্তিকে ছিনিয়ে নেয়। ঘটনার সময় পুলিশের অন্যান্য সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

আহত পুলিশ সদস্য রবিউল ইসলামকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তার ভর্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জিসান আহমেদ। এ ঘটনায় মাদক কারবারী লুৎফর রহমান তার স্ত্রী আটক রাবেয়া বেগম ও পুত্র ফয়সালসহ অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জনকে আসামী করে মণিরামপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here