অভয়নগরে ১৪ দিন পর দেশে এলো প্রবাসী তোরাপ আলীর লাশ

0
24

কামরুল ইসলাম, অভয়নগর

১৪ দিন পর শনিবার সকাল ১০টায় মালয়েশিয়া থেকে দেশে এলো প্রবাসী তোরাপ আলীর (৬০) এর লাশ। যশোরের অভয়নগর উপজেলার ধোপাদী গ্রামের বারিক বিশ্বাসের ছেলে তোরাপ আলী (৬০) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কর্মস্থল মালয়েশিয়া তে মারা যায় গত ২৪ জুলাই তারিখে।

তার লাশ দেশে আনতে নানা জটিলতা দেখা দেয়। সেখানে কর্মরত তার দেশী বন্ধুরা মিলে লাশ দেশে পাঠানোর সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। গত শনিবার রাত একটায় ঢাকায় শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমান বন্দরে পৌছে। সেখানে অপেক্ষা করছিলো তোরাপ আলীর বড় পুত্র নূর আলম।

বিমান বন্দরে লাশ গ্রহণ করার পর বাড়ি পৌছাতে সময় লাগে প্রায় আট ঘন্টা। পরে লাশের জানাযা শেষে সাড়ে ১১ টায় পারিবারিক গোরস্তানে লাশ দাফন করা হয়।

তোরাপ আলীর ছেলে খোরশেদ আলম (২৬)জানায়, তারা মাতা পাচ বছর আগে মারা গেছেনে। পিতা ছিলো তাদের একমাত্র অভিভাবক। সংসারে সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে ১৩ বছর আগে তার পিতা মালয়েশিয়া গিয়েছিলো। কোয়ালামপুরে স্যান স্যন সেঙ্গ নামে একটি ফুড কম্পানীতে তিনি শ্রমিকের কাজ করতেন। ঈদের দিনে ভিডিও কলে পিতার সাথে কথা হয়েছিলো। ঈদের দুইদিন পর তার পিতা সেখানে হার্ট এ্যটাকে আক্রান্ত হয়। সেথানে একটি কিনিকে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে শোকে ভেঙ্গে পেড়ে পরিবারে সকলে।

তার লাশ দেশে আনতে নানা বাধা বিপত্তি পেরোতে হয়। সেখানে কর্মরত স্থানীয় কয়েকজন মিলে তার পিতার লাশ দেশে পাঠাতে সক্ষম হয়। সংসারে সে ছাড়া তার বড় ভাই ও ভাবি আছে। তারা সবাই এখন বেকার। কি করে সংসার চলবে এই ভেবে সে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here