ফসলী জমিতে গরু বেধে রাখার প্রতিবাদ করায় মারপিট, মামলা দায়ের

0
24

বিশেষ প্রতিনিধি

সদর উপজেলার রুদ্রপুর গ্রামের ফসলী জমিতে গরু বেঁধে বিনষ্ট করার প্রতিবাদ করায় ইসরাইল (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে মারপিট করে নগদ ২২শ’ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ায় পিতা পুত্রের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলার আসামীরা হচ্ছে, যশোর সদর উপজেলার ১০নং চাঁচড়া ইউপি ২নং ওয়ার্ড রুদ্রপুর গ্রামের কুবার আলীর ছেলে আসাদ ও মৃত কাসেম মোল্যার ছেলে কুবাত আলী।

রুদ্রপুর গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে শফিকুল ইসলাম সোমবার ২ আগষ্ট উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় তিনি বলেন, রুদ্রপুর মাঠে বাদিদের নিজস্ব জমিতে ঝিংগা ফসল রয়েছে। উক্ত পিতা পুত্র প্রতিনিয়ত উক্ত ফসলী জমিতে তাদের পালিত গরু বেধে ফসল নষ্ট করে। বিষয়টির ব্যাপারে শফিকুল ইসলাম বারংবার নিষেধ করা সত্বেও নিষেধ উপেক্ষা করে উক্ত পিতা পুত্র গরু বেধে ফসল নষ্ট করতে থাকে।

প্রতিদিনের ন্যায় গত ২৬ জুলাই বিকেল ৫ টার পর পিতা পুত্র বাদিদের বর্ণিত ফসলী জমিতে গরু বাধলে সংবাদ শুনে শফিকুল ইসলামের আপন ভাই ইসরাইল হোসেন যান। ফসলী জমি হতে গরু সরিয়ে দেয়। এতে কুবাত আলী ও তার ছেলে আসাদ রাগন্বিত হয়ে ইসরাইলকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।

ইসরাইল গালিগালাজ করতে নিষেধ করায় আসাদ ও কুবাত আলী ক্ষিপ্ত হয়ে ইসরাইলকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাতাড়ী শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারপিট পূর্বক জখম করে। আসাদ তার হাতে থাকা লোহার শাবল দিয়ে ইসরাইলের বাম হাতে আঘাত করে হাড় ভাঙ্গা জখম করে। কুবাত আলী ইসরাইলের পকেটে থাকা নগদ ২২ শ’ টাকা কেড়ে নেয়। ইসরাইলের ডাক চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে ঠেকায়ে দেয়। আসাদ ও কুবাত আলী ইসলাইলকে খুন জখমের হুমকী দিয়ে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় ইসরাইলকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here