যশোরে করোনা ভাইরাসের টিকা পেতে মেসেজ না পেয়ে চরম বিড়ম্বনার শিকার

0
40

বিশেষ প্রতিনিধি

সংক্রমন করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ভ্যাকসিন টিকার ডোজ পেতে যশোরের বিভিন্ন পেশার মানুষেরা চরম ভোগান্তির মধ্যে রয়েছে। ১ম ডোজ পাওয়ার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করেও মেসেজ না পাওয়ায় দিনের পর দিন অপেক্ষা করেও কাঙ্খিত ফল পাচ্ছেনা। যার ফলে রেজিষ্ট্রেশন করার পর দিনেরপর দিন গড়িয়ে অনেকে মাস অতিবাহিত হলেও ১ম ডোজ পাওয়ার মেসেজ না পেয়ে ভোগান্তির মধ্যে পড়ে।

অনেকে রেজিষ্ট্রেশন করার পর ১ম ডোজ দেওয়ার মেসেজ না পেয়ে দ্বিতীয় বার মেসেজ পাওয়ার জন্য যশোর জেলা সিভিল কার্যালয়ে গিয়ে পরের দিন টিকা দেওয়ার মেসেজ পেয়ে তাদের কাঙ্খিত ফলাফল পেতে শুরু করে। প্রতিদিন শত শত নারী পুরুষ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয় মেসেজ পাঠানোর মাধ্যমে টিকা পাওয়ার দিনক্ষনের মেসেজ পাচ্ছিল।

হঠাৎ বৃহস্পতিবার থেকে সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে মেসেজ পাওয়ার সহজ উপায় বন্ধ করে দেয় সিভিল সার্জন। তিনি কার্যালয়ে কর্মরত কম্পিউটার বিভাগের কর্মচারীদের শ্রেফ জানিয়ে দিয়েছেন কেউ মেসেজ পাওয়ার জন্য তার এনআইডি নম্বর নিয়ে আসলে তাকে সদর উপজেলা পরিষদে যেখানে মেসেজ দেওয়ার নিয়ম রয়েছে সেখানে পাঠানোর কথা বলেন।

যশোর শহর থেকে সদর উপজেলা পরিষদ প্রায় আড়াই থেকে তিন কিলোমিটার দূরে। শহরের বিভিন্ন পেশার মানুষ জীবন রক্ষার জন্য যেখানে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে গিয়ে তাদের কাঙ্খিত আশা পুরন করতে পারছিল। তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সকলে হতাশার মধ্যে পড়ে।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ে কর্মরত কর্মচারীরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন সংক্রমন করোনা ভাইরাসের ১ম ডোজ টিকা পেতে যে মেসেজ পাওয়ার জন্য অপশন রয়েছে সেই পাসওয়ার্ড তিনি নিজ হেফাজতে রেখেছেন। তিনি কর্মরত কর্মচারীদের কঠোরভাবে হুশিয়ারী করে দিয়েছেন।

যশোর সদর উপজেলায় বসবাসকারী নারী পুরুষেরা করোনা ভাইরাস থেকে জীবন বাঁচাতে ১ম ডোজ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করে বিভিন্ন কম্পিউটার দোকানে গিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করে টিকা পাওয়ার মেসেজের অপেক্ষায় দিন অতিবাহিত করছে।

যশোর সদর উপজেলা ছাড়াও শহরের সিভিল সার্জন কার্যালয়ে করোনা ভাইরাসের ১ম ডোজ টিকা পাওয়ার মেসেজ পাওয়ার সুবিধা দাবি করেছেন। এ ব্যাপারে খুলনা বিভাগের স্বাস্থ্য কর্মকর্তার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here