আশাশুনি থানা পুলিশের অভিযানে জেলা পরিষদ সদস্য দেলোয়ার গ্রেফতার

0
33

আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৮৩/১৭ ও ৬২১/১৭ নম্বর মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী ও ৭টি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ সদস্য দেলোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ গোলাম কবিরের নেতৃত্বে এসআই নাজিম উদ্দিন ও এসআই পূর্ণনন্দ হরি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে রাজবাড়ী থেকে তাকে গ্রেফতার করেন।

বিভিন্ন সূত্রে জানাগেছে, আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের আব্দুল মাজেদ সরদারের ছেলে দেলোয়ার হোসেন জেলা পরিষদের সদস্য হওয়ার পর থেকে এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানে জেলা পরিষদ থেকে অনুদান দেওয়ার নাম করে কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

এছাড়াও তিনি বিভিন্ন লোকের চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ ডলার ব্যবসা, হুন্ডি ব্যবসা, বেনাপোল ও ভোমরা বন্দরে কালো বাজারীর মাধ্যমে ভারত ও বাংলাদেশে বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসায় লিপ্ত হয়ে কয়েক বছরের মধ্যে তার গ্রামের বাড়িতে বিলাস বহুল বাড়িসহ কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন।

এদিকে, তার এসব অবৈধ কমকান্ড ঢাকতে তিনি বিএনপির শাসনামলে ইউনিয়ন বিএনপির নেতা ছিলেন এবং আওয়ামীলীগের শাসনামলের সময় তিনি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক হয়েছিলেন। তবে উপজেলা আওয়ামীলীগের অনেকেই তাকে হাইব্রীড আওয়ামীলীগ বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি ২০১৬ সালের ২২ মার্চ কুল্যা ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। এরপর ২০১৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ নির্বাচনে কোটি টাকা খরচ করে জেলা পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন।

তার গ্রেফতারের বিষয়ে জানতে চাইলে আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ গোলাম কবির জানান, যেহেতু তিনি সাজাপ্রপ্ত ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। কাজেই এ ধরনের আসামীদের খুঁজে বের করে ধরে আনার দায়িত্ব আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। বহুদিন ধরে তাকে ধরার চেষ্টা করেছিলাম। অবশেষে শুক্রবার দিবাগত রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আসামী যেই হোক না কেন আদালতের আদেশ তামিল করা আমাদের দায়িত্ব। শনিবার আসামীকে বিচারার্থে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here