অদম্য পাঠশালার শিক্ষার্থীদের মাঝে বাসদ’র পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

0
36

মাগুরা প্রতিনিধি

“করোনায় থামবে না পড়া” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট মাগুরা জেলা শাখার উদ্যোগে দরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের জন্য বিনাবেতনের শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচি “অদম্য পাঠশালা”।

অদম্য পাঠশালার অধিকাংশ শিক্ষার্থী শ্রমজীবী পরিবার থেকে এসেছে। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশের মানুষ ভীষণভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে শ্রমজীবী পরিবার টানা লকডাউনে খাদ্য সংকটে পড়েছে।

অদম্য পাঠশালার শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানিয়ে শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকাল ১১টায় পশ্চিম দোয়ারপাড় সর্দার পাড়ায় (অদম্য পাঠশালা প্রাঙ্গণে) খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ৫০ জন দরিদ্র শিক্ষার্থী পরিবারকে চাল, ডাল, আলু, তেল ও লবণ সম্বলিত একটি করে প্যাকেট বিতরণ করা হয়। এই কার্যক্রমে সমর্থক-শুভানুধ্যায়ীরা আর্থিকভাবে বা চাল-ডালসহ খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করেছেন।

এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সদস্য শম্পা বসু, সাংবাদিক ও অভিভাবক রূপক আইচ, বাসদ জেলা সংগঠক ভবতোষ বিশ্বাস জয় এবং মোঃ সোহেল।

নেতৃবৃন্দ বলেন, অদম্য পাঠশালার দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পরিবার ছাড়াও মাগুরায় দিনমজুর, গৃহকর্মী, নরসুন্দর, নির্মাণ শ্রমিক, রিকশা শ্রমিকসহ লকডাউনে সংকটগ্রস্থ শ্রমজীবী মানুষের তালিকা রোজার ঈদের আগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তারা কোন সরকারি সহযোগিতা এখনও পর্যন্ত পাননি। কর্মসূচি থেকে লকডাউনে শ্রমজীবী মানুষের সংকট নিরসনে অবিলম্বে পর্যাপ্ত রেশন দেওয়ার দাবি জানান হয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ মাগুরা জেলা শাখা তার সীমিত সামর্থ নিয়ে অতীতে এই মানুষদের সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু সেটা এই দরিদ্র পরিবারগুলোর প্রয়োজনের তুলনায় অতি নগণ্য। সামনের দিনেও বাসদের কর্মীরা এই শ্রমজীবী দরিদ্র মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এক্ষেত্রে সমর্থক, শুভানুধ্যায়ী, মানবদরদী সকল মানুষের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান জানান তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here