যশোরে প্যারিস রোডে ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুইজন আটক

0
46

বিশেষ প্রতিনিধি

শহরের প্যারিস রোডের বাদশা ফয়সাল স্কুলের পিছনে দুই টাইলস মিস্ত্রীকের অস্ত্র ঠেকিয়ে নগদ ৯ হাজার টাকা ৩শ’ টাকা ও বাইসাইকেল ছিনিয়ে নিয়েছে দস্যুরা। ঘটনার তিনদিন পর ছিনতাই হওয়া বাইসাইকেলসহ দুই দস্যুকে জনগনের সহায়তায় গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, যশোর শহরের বেজপাড়া মেইন রোডের জাহাঙ্গীর হাসান লিপনের ছেলে নিরব হাসান ও শংকরপুর গোলপাতা মসজিদের পাশের্^ গোলাম ইদ্রিসের ছেলে আল আসিব ওরফে ইমু। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় দস্যুতা আইনে মামলা হয়েছে।

যশোর সদর উপজেলার নতুন খয়েরতলা তেঁতুলতলা মোড়ের আমিন মোল্যার মেয়ে ও সৈয়দ ইসলামের স্ত্রী কোহিনুর বেগম বাদি হয়ে উক্ত দুই দস্যুসহ তাদের অজ্ঞাতনামা ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, তার ছেলে সোলায়মান হোসেন (১৯) ও তার বন্ধু একই এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে সুমন (১৮) টাইলস মিস্ত্রী। গত ২৪ জুলাই সোলায়মান ও তার বন্ধু সুমন বাইসাইকেল যোগে তার মামা রনির সাথে দেখা করে বাড়ির উদ্দেশ্যে আসছিল। রাত ১০ টার পর শহরের প্যারিস রোডের বাদশা ফয়সাল স্কুলের পিছনে পৌছালে নিরব হাসান ও আল আসিব ধারালো ছুরি দিয়ে তাদের গতিরোধ করে।

এসময় সোলায়মান হোসেন ও সুমনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের কাছে যা আছে তা নেওয়ার চেষ্টা করে। সোলায়মান হোসেন প্রতিবাদ করার চেষ্টা করলে তাকে মারপিট পূর্বক তার পকেট হতে নগদ ৯ হাজার ৩শ’ টাকা, ১৮ শ’ টাকা মূল্যের মোবাইল ফোন সুমনের পকেটে থাকা একটি ১৮শ’ টাকা মূল্যের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। সোলায়মান ও সুমনের ডাক চিৎকারে আশপাশ থেকে লোকজন এগিয়ে আসলে দস্যুরা অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে ৭ হাজার টাকা মূল্যের বাইসাইকেল, নগদ টাকা ও দু’টি মোবাইল ফোন নিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে। এ ঘটনার পর সোলায়মান ও সুমন বিভিন্ন স্থানে খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারেন তাদের ছিনতাই হওয়ায় বাইসাইকেল দস্যু আল আসিব ইমুর কাছে রয়েছে।

২৭ জুলাই মঙ্গলবার থানা পুলিশ নিয়ে আল আসিবের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ইমুকে গ্রেফতার করে। পরে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক ওই রাতে দস্যুতার সহযোগী নিরব হাসানকে গ্রেফতার করে। তাদেরকে বুধবার ২৮ জুলাই দুপুরে আদালতে সোপর্দ করে। আদালতে সোপর্দ করার পর ইমুকে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক জামিন দেন। নিরব হাসানকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here