অভয়নগরে মাদ্রাসা শিক্ষিকাকে যৌন হায়রানীর অভিযোগে গ্রেফতার

0
45

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর অভয়নগর উপজেলা এলাকায় এক শিশু সন্তানকে দুধপান করার সময় যৌন হয়রানীর শিকার হয়েছেন এক মাদ্রাসা শিক্ষিকা (২৩)। এই ঘটনায় শেখ আব্দুস সবুর (৫০) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। সবুর ওই উপজেলার কোটা গ্রামের মৃত গোলাম মওলার ছেলে।

মাদ্রাসা শিক্ষিকা অভয়নগর থানায় দায়ের করা মামলায় বলেন, তিনি ও তার স্বামী স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন ও উক্ত মাদ্রাসার কোয়ার্টারে সন্তানদের নিয়ে বসবাস করেন। গত ২৭ জুলাই ভোর ৫টায় তার স্বামী মাছ কেনার জন্য বাড়ি হতে বাইরে বের হন। তিনি দরজার ছিটকানী না দিয়েই শুয়ে পড়েন এবং ৩ মাসের শিশু সন্তানকে দুধপান করতে থাকেন। সে সময় শেখ আব্দুস সবুর বাড়ির মধ্যে ঢুকে তার স্বামীর নাম ধরে ডাকতে থাকে ও এক পর্যায় ঘরের মধ্যে ঢোকে।

তিনি ঘরের মধ্যে কেন এসেছেন জিজ্ঞাসা করলে বলে তোমার স্বামী কোথায়? তিনি উত্তরে বলেন, বাজারে মাছ কিনতে গেছে। আব্দুস সবুরকে উক্ত শিক্ষিকা ঘরের বাইরে যেতে বলে তিনি শিশু সন্তানকে দুধপান করাচ্ছিলেন। কিন্তু সবুর বাইরে না গিয়ে মশারী উচু করে তার হাত ধরে টান দেন এবং বুকে হাত দেন। তিনি হাত দিয়ে সরিয়ে চিৎকার দিলে সবুর ঘর থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এই ঘটনা আশেপাশের লোকজন জানাজানি হলে সবুর স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা করে। কিন্তু তিনি ও তার স্বামী মিমাংশা না করে অভয়নগর থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে অভয়নগর থানার এসআই সুকল্যাণ বিশ্বাস জানিয়েছেন, এক মাদ্রাসা শিক্ষিকা বাদি হয়ে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা করেছেন। এই মামলার আসামি শেখ আব্দুস সবুরকে আটক করে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here