যৌতুকের টাকা না পেয়ে অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

0
45

কামরুল ইসলাম, অভয়নগর

যশোরের অভয়নগরে চাহিদা মোতাবেক যৌতুকের টাকা না পেয়ে ছয় মাসের অন্ত:সত্ত্বাস্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে নওয়াপাড়া পৌরসভার ওয়াপদার মোড়ে মোজ্জামেল হোসেনের বাড়িতে এঘটনাটি ঘটেছে। মৃত ওই গৃহবধূর নাম সুমাইয়া আক্তার (২০) তিনি স্থানীয় কোটা গ্রামের আব্দুল জলিল মোল্যার মেয়ে।

থানা পুলিশ ও মৃত্যুর পারিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রেমের সম্পর্ক ধরে এক বছর আগে সুমাইয়া খাতুনের বিয়ে হয় একই উপজেলার কাদিরপাড়া গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে রিয়াজুল ইসলাম সুমনের সাথে। রিয়াজুলের পরিবার এ বিয়ে মেনে না নেওয়ায় তারা নওয়াপাড়ার ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতো।

সুমাইয়া খাতুনের ভাই সোহাগ হোসেন জানান, তার ভগ্নিপতি একজন বখাটে যুবব। কাজ না করে বন্ধু নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। সে যৌতুকের দাবিতে তার বোনের উপর নির্যাতন করতো। গত রোববার রিয়াজুলের দাবিকৃত ১০ হাজার টাকা নিতে তার বোন পিতার বাড়িতে আসে। দরিদ্র পিতা তাকে দুই হাজার টাকা দিয়ে স্বামীর বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রিয়াজুল তার বোনের ওপর নির্যাতন করতে থাকে। নির্যাতনের এক পর্যায়ে তার বোনকে রিয়াজুল গলাটিপে হত্যা করে। রোববার রাত ১২টার দিকে জানানো হয় তার বোন মারা গেছে। পরে তারা ওই রাতে উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে।

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম শামীম হাসান জানান, প্রেমজ সম্পর্ক করে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর যৌতুকের দাবিতে ওই গৃহবধূর ওপর নির্যাতন করতে থাকে। নির্যাতনের মাঝে তাকে আত্মহত্যার জন্য প্ররোচনা করা হতো। ঘটনার দিনে একই ভাবে আত্মহত্যার প্ররোচনা করায় ওই গ্রহবধূ ঘরে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ ঘটনায় ওই রাতেই আত্মহত্যার প্ররোচনা আইনে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আসামী রিয়াজুল ইসলাম পলাতোক রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here