যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগে ৩৫লাখ টাকা ক্ষতি দাবি করে মামলা

0
32

বিশেষ প্রতিনিধি

সদর উপজেলার পুলের হাটস্থ শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) ১০ জুলাই রাত ১০ টা হতে গভীর রাত ৩ টা পর্যন্ত ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় ১১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৩০ জনের নামে মামলা করা হয়েছে। পুলের হাট সমাজ সেবা অধিদপ্তর, শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র (বালক) তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) জাকির হোসেন বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন।

আইনের সহিত সংঘাতে জড়িত শিশু ঢাকা দক্ষিণ কেরানী গঞ্জের খেজুরবাগ এলাকার কমল মজুমদারের ছেলে রাধা মজুমদার (১৭), খুলনা জেলার সদর উপজেলার চরনমারী বাজার এলাকার আব্দুস সালাম হাওলাদারের ছেলে আব্দুল আহাদ (১৭), ফরিদপুর জেলার সদর উপজেলার মধ্যআলীপুর গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে রাকিব (১৭), একই জেলার ও উপজেলার স্বেনকাইল গ্রামের সাদেক শেখ এর ছেলে তানজীদ শেখ (১৬), রংপুর জেলার কাউনিয়া উপজেলার পূর্ব চানঘাট গ্রামের ইদ্রিস আলী ওরফে মাজেদুলের ছেলে সাগর মিয়া (১৩), চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার খাদিমপুর গ্রামের ইকতার আলী বিশ^াসের ছেলে সাকিব বিশ^াস (১৬), রাজশাহী জেলার বোয়ালিয়া উপজেলার বালিয়া পুকুর বড় বটতলা গ্রামের বাবুলের ছেলে সাব্বির (১৮), আসামী খুলনা জেলার সোনাডাঙ্গা থানার জামাল হাউলাদারের ছেলে আবু সাইদ আসিব ওরফে হাসিব (১৯), আইনের সহিত সংঘাতে জড়িত শিশু গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলার পুইশুর গ্রামের বাদশা শিকদারের ছেলে শাহআলম শিকদার (১৪), মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার নওদাপাড়া গ্রামের বায়েছ উদ্দীনের ছেলে সজিব আহম্মেদ (১৬) ও কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার ছাত্রা গ্রামের মোবার ছেলে উজ্জল (১৩)সহ অজ্ঞাতনামা ৩০জন।

মামলায় বাদি উল্লেখ করেন, গত ১০ জুলাই রাত ১০টা থেকে গভীর রাত ৩ টা পর্যন্ত উক্ত শিশু বালকেরা দু’টি হাউজের বিভিন্ন আসবাবপত্র সিসি ক্যামেরা, টিভি, গ্রীল, ফ্যানসহ বিভিন্ন মালামাল ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে ৩৫ লাখ টাকা ক্ষতি সাধণ করে। পরে ওই রাতে চাঁচড়া ফাঁড়ি পুলিশসহ পুলিশের কয়েকটি দল কেন্দ্রে এসে শিশু বালকদের ভাংচুর অগ্নি সংযোগ থেকে নিবৃত করে। পরবর্তীতে খোঁজ খবর নিয়ে কেন্দ্রে ক্ষতি নির্ধারণ করে মামলা দেন হামলাকারী শিশুদের বিরুুেদ্ধ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here