পৃথক অভিযানে ১৭০ পিস ইয়াবা ও আড়াইশ’ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার-৪

0
17

বিশেষ প্রতিনিধি

কোতয়ালি মডেল থানা, পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ি ও র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের সদস্যরা আলাদা অভিযান চালিয়ে ১৭০পিস ইয়াবা, ২৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছে। এ সময় নারীসহ ৪জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, যশোর শহরের শংকরপুর গ্রামের বিষ্ণ রায়ের ছেলে প্রসেনজিৎ রায়, বেজপাড়া (টিবি কিনিক এর দক্ষিণ পাশের্^) মৃত আসাদ হোসেন ব্যাপারীর মেয়ে ও শহিদুল ইসলাম হিরার স্ত্রী সন্ধ্যা বেগম বৃষ্টি, সদর উপজেলার পাগলাদাহ গ্রামের মৃত আফজাল গাজীর ছেলে আসাদ গাজী ও শহরের নাজির শংকরপুর স্কুল পাড়ার মৃত মগরেব আলীর ছেলে রিয়াজুল ইসলাম। এ ঘটনায় মাদক আইনে আলাদা তিনটি মামলা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের বৃহস্পতিবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

কোতয়ালি মডেল থানা সূত্রে জানাগেছে, বুধবার রাত সাড়ে ৯ টায় গোপন সূত্রে খবর পান শহরের নাজির শংকরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনে একজন মাদক বিক্রেতা মাদকদ্রব্য বেচাকেনার করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক বিক্রেতা রিয়াজুল ইসলাম দৌড়ে পালানোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরে তার দখল হতে ১শ’ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে।

অপরদিকে, পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই উজ্জল কবির জানান, বুধবার ১৪ জুলাই রাতে গোপন সূত্রে খবর পান সদর উপজেলার নওদাগ্রাম হতে বোলপুর রোডে বোলপুর গ্রামের জনৈক মোঃ মতিয়ার রহমান (সবুজ) এর বাড়ির সামনে একজন মাদক বিক্রেতা মাদকদ্রব্য বেচাকেনা করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে রাত সোয়া ৯ টায় সেখানে অভিযান চালালে গাঁজা বিক্রেতা আসাদ গাজী পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরে তার দখল হতে ১৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে।

এছাড়া, র‌্যাব-৬ যশোর ক্যাম্প সূত্রে জানাগেছে, ১৪ জুলাই বুধবার বিকেলে গোপন সূত্রে র‌্যাবের একটি চৌকস টিম খবর পান যশোর মেডিকেল কলেজের প্রধান গেট এর সামনে একদল মাদক বিক্রেতা ইয়াবা বেচাকেনার জন্য অবস্থান করছে। র‌্যাবের চৌকস দল সেখানে অভিযান চালিয়ে প্রসেনজিৎ রায়কে ৯০ পিস ইয়াবা ও সন্ধ্যা বেগম বৃষ্টিকে ৮০ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। এসময় তাদের সহযোগী শংকরপুরের সাইদুর রহমান দ্রুত পালিয়ে যায়। এসময় র‌্যাবের টিম গ্রেফতারকৃতদের দখলে থাকা একটি আরটিআর এ্যাপাচী মোটর সাইকেল ও ৩টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। পরে রাতে তাদেরকে কোতয়ালি মডেল থানায় সোপর্দ করে মাদক আইনে মামলা দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here