বেনাপোলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মামলা, আটক-৬

0
15

বেনাপোল প্রতিনিধি

বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী বাজারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা কাটির হওয়ায় থানায় মারামারি সংক্রান্ত অভিযোগ করায় ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পোর্ট থানার পুটখালী গ্রামের শাহআলম বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ করে। আর সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ১০ জুলাই ওই গ্রামের ৬ জনকে আটক করে জেল হাজাতে পাঠিয়েছে পুলিশ। শাহ্আলম থানায় মিথ্যা অভিযোগ করেছে বলে দাবি করেন ওই গ্রামের আল আমিন।

আটককৃতরা হলো পুটখালী গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল কাদের (৫৮) খয়বার আলীর ছেলে জুলফিকার আলী (৪২), ইশারত মোড়লের ছেলে শরিফুল ইসলাম (৫৪), তবি মোড়লের ছেলে ওলিয়ার রহমান (৪০), মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে নুর হোসেন (৪২), মহিব উদ্দিনের ছেলে জাকির হোসেন (৪২) ও মৃত সামসুর রহমানের ছেলে তবিবর রহমান (৫২)।

সুত্র মতে পুটখালী গ্রামের কুখ্যাত চোরাচালানি শাহআলম ও তার বাহিনীর সদস্য ওলিয়ার রহমান বিশ্বাস, ও শাহাজাহান বিশ্বাস আব্দুল কাদেরকে চায়ের দোকান থেকে চলে যেতে বলে। এবং তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে। এসময় আব্দুল কাদের এর সহযোগিরা তার প্রতিবাদ করলে শাহআলম ও তার সঙ্গীরা তাদের গালাগালি করে। এরপর দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। আর সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তারা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়া শাহ আলম ও তার সহযোগিরা নিজেরা নিজেদের বাড়িতে ভাংচুর করে আব্দুল কাদের ও তার সহযোগিদের নামে মিথ্যা অপবাদের ধোয়া তোলে বলে বলে সুত্র দাবি করে।

বেনাপোল পোর্ট থানা সুত্রে জানা যায় আসামিদের নামে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের অভিযোগ রয়েছে। এবং ওই গ্রামের কয়েকজনকে মারধর করার শাহআলম নামে একজন বাদি হয়ে থানায় মামলা করায় ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যেমে জেল হাজাতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য গত ১ জুলাই পুটখালী বাজারের একটি চায়ের দোকানে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে বসা এবং লকডাউন সম্পর্কে বিভিন্ন কথা বার্তার একপর্যায় তর্কে জড়িয়ে হাতাহাতি সংঘটিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here