চৌগাছার কপোতাক্ষ নদ থেকে কিশোরের মৃতদেহ উদ্ধার

0
39

শ্যামল দত্ত, চৌগাছা

যশোরের চৌগাছায় কপোতাক্ষ নদ থেকে তরিকুল ইসলাম (১৬) নামে এক কিশোরের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে পাশ্ববর্তী ঝিকরগাছা উপজেলার আটুলিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীরের ছেলে।

শনিবার (১০ জুলাই) সকাল নয়টার দিকে দশপাকিয়া ফাড়ির পুলিশ উপজেলার ধুলিয়ানী ইউনিয়নের বড়কাবিলপুর ও ভারতের বয়রার লক্ষীপুরের মধ্যদিয়ে বয়ে চলা কপোতাক্ষ নদের পানিতে তীরে পানিতে ভেসে থাকা মৃতদেহটি উদ্ধার করে। উদ্ধারের সময় তার পরনের লুঙ্গি কাছা মারা এবং গায়ের গেঞ্জি লুঙ্গিতে গুঁজে রাখা ছিল। এছাড়া লাশের পিঠের দিকে বাম হাতের গোড়ায় থেতলানো-হাচড়ানো দাগ ছিল।

নিহতের চাচাতো ভাই সুজন বলেন, খুব ছোট বেলায় আমার চাচি চলে যায়। আমার মা ও আব্বা ওদের দুভাইকে মানুষ করে। মা না থাকায় এবং আমার চাচাও কিছুটা মানসিক ভারসম্যহীন হওয়ায় সে অল্প বয়স থেকেই গাঁজা, ফেনসিডিল খাওয়া ও বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীর শ্রমিক হিসেবে কাজ করা শুরু করে। আমি অনেক চেষ্টা করেছি, মেরেছিও। তবুও ছাড়েনি। ওর নামে ঝিকরগাছা থানায় মাদক মামলা আছে। মাস তিনেক আগে কিশোর সংশোধনাগার থেকে জেল খেটে এসেছে। গ্রামের কেউ কেউ বলছে কালও (শুক্রবার) নাকি গাঁজা খেয়েছিল।

দশপাকিয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক আব্দুল জলিল বলেন, মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না ঠিক কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে তিনি বলেন পরিবারের লোকজন জানিয়েছে গতকালও সে অতিরিক্ত গাঁজা সেবন করেছিল। অতিরিক্ত নেশাগ্রস্থ অবস্থায় নদে নামতে গিয়ে বাঁশ ঝাড়ে হোচট খেয়ে পড়ে বাঁশের গোড়ায় আঘাতে পেতে পেতে গড়িয়ে নদীতে পড়ে মারা গেছে বলেই প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here