যশোরে অভাবী ও বেওয়ারিশদের জন্য খাবার নিয়ে রাস্তায় বিকেএসপির শিক্ষার্থী দুই বোন

0
36

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোরে চলমান লকডাউনে হোটেল, রেস্টুরেন্টসহ খাবারের প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ছিন্নমূল ও অভাবী মানুষ ও বেওয়ারিশ কুকুরের খাবারের সংগ্রহ করা কঠিন হয়েছে পড়েছে। অনহারে তাদের দিন পার করতে হচ্ছে। স্বাভাবিক অবস্থার মত কেউ তাদের খাবার দিচ্ছেন না। তাদের কথা চিন্তা করে মানবিক উদ্যোগ নিয়েছেন শহরের চার খাম্বার বাসিন্দা খবির শিকদারের দুই মেয়ে বিকেএসপির দুই শিক্ষার্থী। পারিবারিকভাবে খাবার রান্না করে তারা শহরের বিভিন্ন মোড়ে বিতরণ করছে।

মঙ্গলবার ৬ জুলাই থেকে বাইসাইকেলে যোগে রান্না করা খাবার বিতরণ করা শুরু করেছে তারা। দু’দিনে চারখাম্বা, রেলস্টেশন, আশ্রম মোড় ও টিবি কিনিক এলাকায় ১শ’ ৫০ জন রাস্তার মানুষ ও ৮০টি বেওয়ারিশ কুকুরকে খাবার দিয়েছে। এ কাজে তাদের সহযোগিতা করছেন তাদের বাবা খবির শিকদার ও মা ফিরোজা খাতুন। এই মহান কাজের উদ্যোক্তা সুমাইয়া শিকদার ইলা ও তার ছোট বোন সুরাইয়া শিকদার এশা। সপ্তাহব্যাপী এই মহৎ কাজ করবে বলে জানিয়েছে।

খবির শিকদার সাংবাদিকদের জানান, যশোরে করোনাভাইরাস উদ্বেগজনকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। তাই সরকারিভাবে কঠোর বিধি-নিষেধ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। খাবার হোটেলসহ কোন সব ধরনের মার্কেট ও শপিংমল বন্ধ রয়েছে। সাধারণ মানুষকে ঘরের বাইরে বের হতে দেয়া হচ্ছে না। তাই ভাসমান মানুষ ও কুকুরের খাবার নিয়ে তার দুই মেয়ে বেশ চিন্তিত, উদ্বিগ্ন। এজন্য তাদের উদ্যোগেই মূলত সপ্তাহব্যাপী খাবার দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তিনি ও তার স্ত্রী মেয়েদের সমর্থন করছেন। তাদের মা ডিম-খেচুড়ি রান্না করে দিচ্ছেন। দুই মেয়েকে সাথে নিয়ে তিনি বাইসাইকেলে করে খাবার বিতরণ করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here