আশাশুনিতে মৎস্য ঘেরে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ

0
77

আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার কোলায় এক অসহায় বিধবা নারীর শ্লীলতাহনী, মৎস্য ঘেরের মাছ লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও ঘের জবর দখল এর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবাপারে মঙ্গলবার আব্দুস সালাম বাদী হয়ে আশাশুনি থানায় লিখিত অভিযোগে দাখিল করেছেন।

অভিযোগসূত্রে জানাগেছে, সোমাবার গভীর রাতে উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কোলা গ্রামের আমজেদের প্রত্যক্ষ নির্দেশে তার ক্যাডার বাহিনী অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কোলা গ্রামের মৃত ইনসান গাজীর বিধাবা স্ত্রী (৩৫) এর মৎস্য ঘেরে প্রবেশ করে। মৎস্য ঘেরে বিধাব নারী ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় তাকে প্রথমে জাপটে ধরে স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে যৌন নির্যাতন করে শ্লীলতাহানি ঘটায়। তার ডাক চিৎকারে পার্শ্ববর্তী ঘের মালিক সালাম, ইছাক হালদার, মিজানুরসহ অন্যান্য ঘের মালিকগন ঘটনাস্থলে পৌছে দেখে আমজেদ বাহিনীর ইয়াছিন, মিলন, ওলিউর, মনি, আলমসহ ১৫/২০ জনের একটি দল ভয়ভীতি দেখিয়ে বিধাবা নারীকে টানা হেচড়া করাসহ ঘেরের বাসায় থাকা মূল্যবান জিনিসপত্র ও মাছ লুটপাট করছে। তারা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে দাড়িয়ে থাকে।

একপর্যায়ে তারা বাসায় অগ্নিসংযোগ ও ঘের জবর দখল করে বিধাবা মহিলাকে গলা ধরে বাইরে বের করে দেয়। এরপর ঐ ঘেরে ৪/৫ জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পাহারা দিতে থাকে। বাকীরা ত্রাস সৃষ্টি করে পর্যায়ক্রমে পার্শ্ববর্তী আব্দুস সালাম ও ইছাহাক হালদারের মৎস্য ঘের জবর দখল ও লুটপাট করে।

ভোর হতে না হতেই গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছানো শুরু করলে তারা কৌশলে ঘের ছেড়ে অন্য পথ দিয়ে চলে যায়। এব্যাপারে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবিরের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, এ সংক্রান্ত কোন অভিযোগ আমি এখনো হাতে পায়নি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here