আশাশুনিতে আদালতে বিচারাধীন ভূমিহীন নেত্রীর ভোগ দখলে থাকা সম্পত্তি দখলের চেষ্টা

0
17

আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনিতে আদালতে বিচারধীন ভূমিহীন নেত্রীর ভোগ দখলে থাকা সম্পত্তি জবর দখল ও ভাংচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার সকালে ভোগ দখলে থাকা সম্পত্তি জবর দখল ও ভাংচুর এর এ ঘটনা ঘটে।

সরজমিনে ঘুরে ও থানায় লিখিত অভিযোগে জানাগেছে, আশাশুনি সদরে মানিখালী মেইন সড়ক সংলগ্ন উপজেলা পরিষদের সামনে উপজেলা ভূমিহীন সমিতির সভনেত্রী মারুফা খাতুন জমি ক্রয় ও ডিসিআর মূলে ০১ নং খতিয়ানে এসএ ৬৪৪, বিএস ১৪৩৪ ও ১৩৫২, এসএ ৬৪২, ৯৮ ও ৯৭ এবং হাল ৫৪৬ দাগে মোট ৩৫ শতক সম্পত্তি ঘেরা বেড়া দিয়ে বসত ঘর বেঁধে দীর্ঘদিন বসবাস করে আসছে।

জমির কাগজ পত্রের ফাঁক ফোকড়ের কারনে ভূমিহীন নেত্রী আমিরুলের স্ত্রী মারুফা খাতুনের সাথে পার্শ্ববর্তী বদর উদ্দীন ঢালীর পুত্র হাসেম ঢালী গংদের বিরোধ চলে আসছে। এনিয়ে মারুফা বাদী হয়ে হাসেম ঢালী গংদের আসামী করে ফৌজদারী টিআর ১৫৮/১৮ ও ৩৯/১৯ নং মামলা দায়ের করেছে। যার মধ্যে ১৫৮/১৮ নং মামলায় হাসেম ঢালীদের বিরুদ্ধে আদালত রায় দেন। টিআর ৩৯/১৯ নং মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

এক পর্যায়ে হাসেম ঢালী ক্ষান্ত না হয়ে সাতক্ষীরা যুগ্ম-জেলা দায়রা জজ-২ নং আদালতে দেওয়ানী ১৬৭/১৯ নং মামলা করেন, যাহা অদ্যবদি বিচারাধীন রয়েছে। এরই মধ্যে বুধবার সকাল ৮ টার দিকে হাসেম ঢালী তার গ্রামের বাড়ী প্রতাপনগর ইউনিয়নের কল্যানপুর এলাকা থেকে ৪/৫ জন ও স্থানীয় ২/৩ জন শ্রমিক নিয়ে মারুফার সিমানা পিলার ও ঘেরা বেড়া ভাংচুর করে জবর দখল করতে থাকে। মারুফা এসময় ৯৯৯ এ রিং দিয়ে ঘটনা অবহিত করেন।

মুহুর্তের মধ্যে আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির পুলিশ ফোর্স প্রেরণ করে কাজ বন্ধ করে দিয়ে আগামী সোমবার উভয় পক্ষকে স্ব-স্ব পক্ষের কাগজ পত্রাদিসহ থানায় হাজির হওয়ার নির্দেশনা দেন। ততক্ষণে সকল কার্যক্রম বন্ধ রেখে স্থিতি অবস্থা বজায় রাখতে উভয় পক্ষকে অনুরোধ করেন। এ ঘটনায় মারুফা প্রতিপক্ষ হাসেম ঢালী আদালতে বিচার চেয়ে তিনিই আইন ভঙ্গ করায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এদিকে, হাসেম ঢালী জানান, ঐ জমি আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি। বিভিন্ন ছলচাতুরি করে মারুফা রেকর্ডীয় সম্পত্তির সামনে বিরোধপূর্ণ জমিতে ভূমিহীন সমিতির সাইন বোর্ড লাগিয়ে দখল করে রেখেছেন। মূলত আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তি থেকে মারুফা ক্রয় করে বেশী অংশ দখল করে রেখেছেন। আমি আমার ক্রয়কৃত বেদখলীয় জায়গায় ঘেরা বেড়া দিচ্ছিলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here