মা-ছেলেকে মারপিট, একই পরিবারের ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

0
34

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর সদরের বড় বালিয়াডাঙ্গা মাঠপাড়ায় এলাকার পুরুষ ও নারী সন্ত্রাসী কর্তৃক মা-ছেলেকে মারপিটে জখম করার অভিযোগে একই পরিবারের ৪ জনের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। ওই এলাকার মৃত আবু বক্কার দফাদারের মেয়ে আকলিমা বেগম (২০) বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলাটি করেন।

আসামিরা হলো, ওই এলাকার আকবর আলী দফাদারের ছেলে জামিরুল ইসলাম (৩৫), মৃত আহম্মদ আলী দফাদারের ছেলে আকবর আলী দফাদার (৬০), জামিরুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ আদরী বেগম ও তার শ্বাশুরী শামছুননাহার বেগম।

মামলায় বলা হয়েছে, আসামিরা বাদির প্রতিবেশি। প্রায় সময় বাদির সাথে ঝগড়া বিবাদ করে বেড়াই। তাদের বাড়ির মধ্যে টিউবওয়েলে আসামীরা হঠাৎ শত্রুতার বশত কেরোসিন দিয়ে পানি নষ্ট করে দেয়। বাদির মধ্যে কাপড় চোপড় ফেলে মাটিতে ফেলে ক্ষতি করে। টিনের চালে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। জানালা দিয়ে লাঠি ঢুকিয়ে মানুষের ক্ষতির চেষ্টা করে।

এ ব্যাপারে বাদী ও তার পরিবারের লোকজন প্রতিবাদ করে বাদি আকলিমাসহ তার ভাই তুরফান (১৯) ও মা রাশিদা বেগম (৫৫)। গত ২৪ জুন দুপুর দুইটার দিকে আসামি জামিরুল ডেকে নিয়ে যায় তুরফানকে। মিথ্যা অভিযোগ করে বলে তোদের গাছের আম পড়ে টালি ভেঙ্গে গেছে।

এছাড়া নানা অভিযোগে তাকে গালিগালাজ করে। এ সময় গালি দিতে নিষেধ করলে আসামিরা ক্ষিপ্ত হয় এবং তুরফানকে কিলঘুষি মেরে মাটিতে ফেলে দিয়ে তার পকেটে থাকা ফার্নিচার কেনার ১৮ হাজার টাকা এবং একটি মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়।

এ সময় তার মা রাশিদা বেগম ঠেকাতে এলে তাকেও মারপিটে জখম করা হয়। তার পড়নের কাপড় টেনে শ্লীলতাহানী ঘটনায়। পরে ফের হত্যার হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। ওই ঘটনার পর তুরফানকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। আকলিমা কোতয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হলে পুলিশ তা মামলা হিসাবে রেকর্ড করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here