পৃথক দূর্ঘটনায় ইজিবাইক চালক ও বাইসাইকেল আরোহী নিহতের ঘটনায় দু’টি মামলা

0
8

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর রাজগঞ্জ সড়কের গোয়ালদাহ মাঠপাড়া এবং যশোর ঝিনাইদহ সড়কের চুড়ামনকাটি বাজারে দু’টি সড়ক দূর্ঘটনায় ইজিবাইক চালক ও বাইসাইকেল আরোহী নিহত ঘটনায় সড়ক পরিবহন আইনে দু’টি মামলা হয়েছে। পুলিশ একটি মামলায় প্রাইভেট কার চালক মমিনুল ইসলাম ওরফে দিপুকে গ্রেফতার পূর্বক আদালতে সোপর্দ করেছে।

যশোর সদর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামের মনির উদ্দিনের ছেলে নিজাম উদ্দিন বাদি হয়ে শুক্রবার ২৫ জুন রাতে প্রাইভেট চালক মমিনুল ইসলাম ওরফে দিপুর বিরুদ্ধে মামলা করেন। দিপুর ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মহিলা কলেজপাড়া ৫নং ওয়ার্ড পৌরসভার মৃত ইব্রাহিম সরদারের ছেলে।

মামলায় নিজাম উদ্দিন উল্লেখ করেন, তার শ্যালক সদর উপজেলার পদ্মবিলা গ্রামের মৃত আলী লস্করের ছেলে আব্দুর রহিম (৩৭) সদর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামের শ্বশুর শাহাজাহান আলীর বাড়িতে থাকে। পেশায় ইজিবাইক চালক। শুক্রবার ২৫ জুন সকালে সে শ্বশুর বাড়ি হতে ইজিবাইক নিয়ে বের হয়। আব্দুর রহিম ইজিবাইক চালিয়ে সাতমাইল বাজার থেকে চুড়ামনকাটি বাজারের উদ্দেশ্যে আসছিল।

দুপুর ১২ টায় চুড়ামনকাটি বাজারস্থ জনৈক রমজানের স্যানেটারী দোকানের সামনে পৌছালে হঠাৎ ঝিনাইদহ গামী বেপরোয়া গতি সম্পন্ন একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্টো খ-১১-৮২৬৭) ইজিবাইকটিকে স্বজোরে সামনে থেকে ধাক্কা মারে। ধাক্কায় ইজিবাইক চালক আব্দুর রহিম ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। স্থানীয় লোকজন প্রাইভেট কারের চালককে ধরে ফেলে।

ইজিবাইক চালককে গুরুতর আহত অবস্থায় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করে। প্রাইভেট কার চালককে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

অপরদিকে, কোতয়ালি মডেল থানার এসআই সাদ্দাম হোসেন বাদি হয়ে শনিবার ২৬ জুন ইঞ্জিন চালিত পলাতক ট্রলি চালক আবুল কালামের বিরুদ্ধে মামলা করেন। আবুল কালাম যশোরের মণিরামপুর উপজেলা খেদাপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে।

এসআই সাদ্দাম হোসেন মামলায় উল্লেখ করেন, গত ১২ জুন তিনি জরুরী ডিউটি করার সময় বেতার বার্তার মাধ্যমে জানতে পারেন যশোর পুলেরহাট টু রাজগঞ্জ সড়কের গোয়ালদাহ মাঠপাড়া গ্রামস্থ জনৈক লাল্টুর বাড়ির সামনে পূর্ব পাশে পাকারাস্তার উপর সড়ক দূর্ঘটনা ঘটেছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে উক্ত এসআই দ্রুত সেখানে পৌছে জানতে পারেন সদর উপজেলার বালিয়া ভেকুটিয়া গ্রমের মৃত আব্দুল বারিক বিশ্বাসের ছেলে নিজাম উদ্দিন বিশ্বাস (৭০) বাইসাইকেল চালিয়ে ওই দিন সকালে পুলের দিকে আসছিল।

বেলা সাড়ে ১১ টায় ঘটনাস্থলে পৌছালে একটি ব্যাটারী চালিক ভ্যানগাড়ীতে সাইড দিয়ে আসার সময় বিপরীত মূখী একটি ইঞ্জিন চালিত মালবাহী ট্রলি বাইসাইকেল আরোহী নিজাম উদ্দিন বিশ্বাসকে সাইকেলসহ ধাক্কা মারে। জনগন আসার পূর্বে ট্রলি চালক আবুল কালাম দ্রুত পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন বৃদ্ধ নিজাম উদ্দিনকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১ টায় তিনি মারা যান। মারা যাওয়ার পর নিহতর পরিবারকে বিষয়টি মামলা করার জন্য বলা হলে তারা মামলা করতে আগ্রহী প্রকাশ না করায় এসআই সাদ্দাম হোসেন বাদি হয়ে ট্রলি চালকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here