৪ কারণে করোনা গ্রাফে ঊর্ধ্বগতি : ডা. আব্দুল্লাহ

0
13

সত্যপাঠ ডেস্ক

বুধবার প্রকাশিত একটি খবর নয়া আতঙ্কের জন্ম দিয়েছে দেশজুড়ে। খবরটি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তারা বলছে, দেশের ৪০টি জেলা উচ্চ সংক্রমণ ঝুঁকিতে রয়েছে। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপ্রবণ এলাকা হচ্ছে খুলনা ও রাজশাহী বিভাগ। ঝুঁকি প্রধান জেলার মধ্যে রয়েছে ঢাকাও। গত ক’দিনের মৃত্যু ও শনাক্তের হার সে সাক্ষ্যই দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকালের চিত্রটি আরও উদ্বেগের। চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন জানিয়েছেন সেখানে শনাক্তের হার শতভাগ। বিক্ষিপ্তভাবে লকডাউন চলছে। কেউ মানছেন, কেউ মানছেন না।

কিন্তু ফের কেন এই উল্লম্ফন? এর নেপথ্যের কারণই বা কি? প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও ইউজিসি অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ এর পেছনে মূলত চারটি কারণ চিহ্নিত করেছেন। তিনি বলেছেন-

১. ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট যা ডেল্টা ভাইরাস নামে পরিচিত। তা অধিক সংক্রমণ ঘটাচ্ছে। এর ছড়িয়ে পড়ার হার অন্য যেকোনো ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে বেশি। সাম্প্রতিক সময়ে সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে তা ছড়িয়ে পড়ায় করোনার গ্রাফ আবারো উপরের দিকে ছুটছে।

২. মানুষ কোনোভাবেই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। লকডাউন চলছে নামেই। কেউ মাস্ক পরছেন না। শারীরিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই। মার্কেটে যাওয়া, উৎসবের সময় বাড়ি যাওয়া আবার ঢাকায় ফেরা এর কোনোটাই তো বন্ধ হয়নি।

৩. এত কিছুর পরও যোগাযোগ তো বন্ধ করা যায়নি। ঢাকার চারপাশে লকডাউন চলছে। কিন্তু লোকজনের চলাফেরা কি বন্ধ আছে? ঢাকার বাইরে মানুষ গাড়ি বদল করে আরেক গাড়িতে উঠছে। এতে করে করোনাও ছড়াচ্ছে, গাড়ি বদল করছে। সুতরাং, যা হওয়ার তাই হচ্ছে।

৪. টিকা নিয়ে সংকট আছে। এখনো পর্যন্ত দেশের সকল পর্যায়ের নাগরিকদের টিকার আওতায় আনা যায়নি। যদি সকল নাগরিককে টিকা দেয়া সম্ভব হতো তাহলে এর লাগাম টানা অনেক বেশি সহজ হতো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here