গলায় ফাঁস দিয়ে তরুনীর আত্মহত্যা

0
54

বিশেষ প্রতিনিধি

লেখাপড়া করা নিয়ে মায়ের বকুনিতে অভিমান করে সিলিং ফ্যানের সাথে পরনের ওড়না পেঁচিয়ে তাসকিন মাহাজাবী ওরফে সিহা (২০) নামে এক তরুনী আত্মহত্যা করেছে। তিনি যশোর সদর উপজেলার ধর্মতলার মৃত তফসীর আলমের ও সিনিয়র স্টাফ নার্স তহমিনা খাতুনের মেয়ে। শুক্রবার রাতে বাড়িতে কেউ থাকার সুযোগে নিজ কক্ষে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

তরুনীর পরিবারিক সূত্রে জানাগেছে, সম্প্রতি তাসকিন মাহাজাবী ওরফে সিহা মেডিকেল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে অকৃতকার্য হয়। এতে তার মা তাকে মাঝে মধ্যে বকাঝোকা করে। শুক্রবার বিকেল থেকে সিহার মা সাংসারিক বিষয় ও লেখাপড়া নিয়ে বকাঝোকা করে। মা তহমিনা খাতুন হাসপাতালে রাত্রীকালীন ডিউটি থাকায় তিনি ঘরের বাইরে থেকে তালা মেরে অফিসে যায়। অফিসে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর অভিমান করে তরুনী সিহা নিজ কক্ষের সিলিং ফ্যানের সাথে পরনের ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে পড়ে।

সিহার খালা ও খালাতো বোন ঘরে ঢুকে সিহার ঘরের দরজা বদ্ধ দেখে খোলার চেষ্টার করে পরে দরজা ভেঙ্গে উদ্ধার করে রাত সোয়া ১০ টার পর যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা নিরীক্ষা করে মৃত বলে ঘোষনা করে। এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here