আশাশুনি টু শ্রীউলা সড়কের মহিষকুড়সহ বিভিন্ন এলাকায় চরম দুর্গতি

0
29

এম এম নুর আলম, আশাশুনি

আশাশুনি টু শ্রীউলা সড়কের নির্মান কাজ শুরুর পর বন্ধ থাকায় কিছু এলাকায় চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে যানবাহন চলাচল ও পথচারীদের দুর্গতি লেগেই আছে। আশাশুনি টু কোলা-ঘোলা ভায়া শ্রীউলা সড়কটি খুবই জনগুরুত্বপূর্ণ।

শত শত ভারী ও হালকা যানবাহন চলাচল এবং শ্রীউলা, প্রতাপনগর, খাজরা ইউনিয়নসহ কালিগঞ্জ, শ্যামনগর, কয়রা উপজেলার মানুষ এ পথেই বিভিন্ন সময় যাতয়াত করে থাকে। কিন্তু সড়কটি দীর্ঘকাল সংস্কার না করায় গোটা এলাকার মানুষ বিচ্ছিন্ন ও কষ্টকঠিন পরিস্থিতিতে নিমজ্জিত ছিল। বছরের পর বছর সড়ক নির্মানের ওয়াদা জন প্রতিনিধি, উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা দিয়ে আসলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ৩/৪ বছর আগে অনেক খড়কুটো পোড়ানোর এক পর্যায়ে সড়কটির কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু সামান্য কিছু কাজের পর বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে সেটুকু বিলীন হয়ে যায়। এরপর সাতক্ষীরা টু আশাশুনি সড়কের সাথে আশাশুনি শ্রীউলা সড়কের কাজে হাত দেওয়া হয়। সড়ক খুড়ে রাখার পর কাজ না হওয়ায় কষ্টের শেষ না হয়ে ভোগান্তি বাড়তেই থাকে।

গত বছর সাতক্ষীরা টু আশাশুনির কাজ শেষ হলেও এই সড়কের কাজ খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলতে দেখা যায়। এরপর মূলত কাজ বন্ধ হয়ে গেলেও কেবল মানুষকে ধুলাবালির হাত থেকে রক্ষার মানসে সাথে সাথে সড়কের পানির প্রয়োজন মেটাতে গাড়িতে করে সড়কের অংশ বিশেষ পানি ছিটানোর কাজ করা হলেও আর কাজ শুরু করা হয়নি। বর্তমানে সড়কের মহিষকুড় সেট হতে নাকতাড়া পর্যন্ত অংশে অসংখ্য স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির পানিতে সড়ক ব্যবহার অনুযোগি হয়ে পড়ছে। কর্দমাক্ততার কারনে যানবাহন চলাচল ও পথচারীদের সড়ক পার হতে কেঁদে ফিরতে হচ্ছে।

একই সাথে কাজ শুরুর পরও কেন শ্রীউলার রাস্তার কাজ হচ্ছেনা, এর সদুত্তর পাওয়া মুশকিল। উত্তর যাই আসুক না কেন, পক্ষান্তরে ভোগান্তির উর্দ্ধমুখি দৌড় ছাড়া জনগসাধারণের তো পাওয়ার কিছু নেই। যুগযুগ ধরে একটি এলাকার মানুষকে ভোগান্তির অতল গহবরে নামানোর পরিণতি থেকে এলাকাবাসী বাঁচতে চায়। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ তথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে এহেন দুর্গতির হাত থেকে রক্ষা পেতে আকুল আকুতি জানিয়েছেন ভুক্তভোগি এলাকাবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here