শিক্ষার্থী অপহরণের অভিযোগে মামলা, ভাইবোন গ্রেফতার

0
43

বিশেষ প্রতিনিধি

শহরের নীলগঞ্জ সিটি কলেজপাড়া থেকে এক কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। পুলিশ শিক্ষার্থী অপহরনের অভিযোগে ভাইবোনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, শহরতলী নীলগঞ্জ সুপারী বাগান এলাকার মোহন অধিকারীর ছেলে সুব্রত অধিকারী ও তার বোন নীলগঞ্জ সুপারী বাগান এলাকার শ্রী গনেশ অধিকারীর স্ত্রী টুম্পা অধিকারী।

শহরের নীলগঞ্জ সিটি কলেজ পাড়ার কার্তিক অধিকারীর স্ত্রী চৈতালী অধিকারী বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, তার মেয়ে তুলি অধিকারী (১৭) যশোর সিটি কলেজে দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যায়নরত। সুব্রত অধিকারী তার দেবর শ্রী গনেশ অধিকারীর শ্যালক। টুম্পা গনেশ অধিকারীর স্ত্রী।

দেবরের শ্যালকের সূত্রধরে সুব্রত কার্তিক অধিকারীর বাড়িতে আসা যাওয়ার এক পর্যায় সুব্রত তুলি অধিকারীকে কু- প্রস্তাব দিতো। বিষয়টি নিয়ে বিরোধ দেখা দিলে মীমাংসা হয়। সুব্রত অধিকারী বোন টুম্পা অধিকারী তুলি অধিকারীকে তার ভাইয়ের সাথে বিয়ের দেওয়ার জন্য ফুসলাতে থাকে। গত ২ জুন বিকেলে তুলি অধিকারী বাড়ী হতে বাইরে আসার পর নিখোঁজ হয়। তার পর থেকে তাকে কোথাও পাওয়া যাচ্ছেনা। তুলি অধিকারীর মা বিষয়টি সন্দেহ পোষন করে টুম্পা অধিকারী তার মেয়েকে সু-কৌশলে অপহরণ পূর্বক অজ্ঞাত স্থানে আটকে রেখেছে।

এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ সুব্রত অধিকারী ও টুম্পা অধিকারীকে গ্রেফতার করে বুধবার আদালতে সোপর্দ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here