শিশুদের সিনোভ্যাকের টিকা দেওয়ার অনুমোদন দিলো চীন

0
11

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

শিশুদের করোনামুক্ত রাখতে তিন থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের সিনোভ্যাকের করোনার টিকা দেওয়ার জরুরি অনুমোদন দিয়েছে চীন। গতকাল শুক্রবার রাতে সিনোভ্যাক বায়োটেক কোম্পানির প্রধান ইয়িন উইডং দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এ তথ্য জানান। দেশটিতে বর্তমানে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের করোনার টিকা দেওয়া হচ্ছে।

গত ১ জুন চীনের তৈরি করোনার দ্বিতীয় টিকা হিসেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সিনোভ্যাক বায়োটেক কোম্পানির তৈরি করোনার টিকা ‘করোনাভ্যাক’ এর অনুমোদন দেয়। ডব্লিউএইচও এর স্বাধীন বিশেষজ্ঞদের প্যানেল এক বিবৃতিতে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের জন্য সিনোভ্যাকের এই টিকার দুই ডোজ সুপারিশ করেছে। দুই থেকে চার সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে।

কবে নাগাদ সিনোভ্যাকের টিকা শিশুদের দেওয়া শুরু হবে এমন প্রশ্নের জবাবে সিনোভ্যাক বায়োটেক কোম্পানির প্রধান ইয়িন উইডং বলেন, চীনের টিকাদান কর্মসূচির অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ সে সিদ্ধান্ত নেবেন।

শিশুদের উপর সিনোভ্যাকের টিকার কিনিক্যাল ট্রায়ালের প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, এই টিকা তিন থেকে ১৭ বছর বয়সীদের শরীরে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে সক্ষম। টিকার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও তাদের উপর খুবই মৃদু।

ইয়িন বলেন, তাদের টিকার কিনিক্যাল ট্রায়ালের দ্বিতীয় ধাপে অংশ নেওয়া শিশুদের টিকার নিয়মিত দুই ডোজ দেওয়ার পর তৃতীয় আরেকটি বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

ট্রায়ালে দেখা গেছে, টিকা দেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের দেহে ১০ গুণ অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে এবং দুই সপ্তাহের মধ্যে তা বেড়ে ২০ গুণ হয়েছে। তবে তৃতীয় বুস্টার ডোজ কখন দেওয়া উচিত সেটা ঠিক করতে তাদের আরও দীর্ঘ সময় ধরে পরীক্ষা চালাতে হবে বলেও জানান ইয়িন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here