সবাইকে নিয়মের মধ্যে চলতে হবে : উপাচার্য ড. আনোয়ার

0
94

সত্যপাঠ ডেস্ক

দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন। তিনি বলেছেন, সবাইকে নিয়মের মধ্যে চলতে হবে। এ বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি গবেষণা বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির জন্য সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে যবিপ্রবির দ্বিতীয় মেয়াদে উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণ করে অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন যশোর শহরস্থ বকুলতলায় ও যবিপ্রবির প্রধান ফটকে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে তিনি ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণে একটি বৃক্ষ রোপণ করেন। গত ১ জুন মঙ্গলবার মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর-এঁর অনুমোদনক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ এক প্রজ্ঞাপনে তাঁকে দ্বিতীয় মেয়াদে যবিপ্রবির উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে।
যোগদানপত্রে স্বাক্ষরের সময় উপস্থিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে চিন্তা-চেতনা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে বাস্তবায়ন চাচ্ছেন, আমরা যেন তাঁকে সেটা উপহার দিতে পারি। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়কে যেন একটি গবেষণা বিশ^বিদ্যালয় হিসেবে গড়ে তুলতে পারি, সে জন্য আপানাদের সবার সহযোগিতা চাই।’
তিনি বলেন, অতীতে আপনাদের যে সাহায্য সহযোগিতা পেয়েছি, আশা করি, আগামীতেও আপনাদের কাছ থেকে সেই সাহায্য সহযোগিতা পাবো। অতীত ভুলে যান। আমরা এখন নতুনভাবে চিন্তা করে বিশ^বিদ্যালয়কে গড়ে তুলি। তবে বিশ^বিদ্যালয়ের নিয়ম-কানুন মেনে সবাইকে চলতে হবে। আশা করি, আমরা সেভাবে চলতে সবাই বদ্ধপরিকর আছি। একইসঙ্গে তাঁকে দ্বিতীয়বার যবিপ্রবির উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেওয়ায় মহামান্য রাষ্ট্রপতি, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তিনি। এরপরে তিনি দক্ষতার সাথে অন্তর্ববর্তীকালীন দায়িত্ব পালন করায় যবিপ্রবির সদ্য বিদায়ী উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বfসসহ সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
যবিপ্রবিতে দ্বিতীয় মেয়াদে উপাচার্য হিসেবে যোগদানের পর অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেনকেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানায় যবিপ্রবির শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিভিন্ন বিভাগ, ইনস্টিটিউট ও দপ্তরের শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। এ ছাড়া যবিপ্রবি নীল দল, যবিপ্রবি ছাত্রলীগ, সাংবাদিক সমিতি, সহায়ক, রোটার‌্যাক্ট কাব, বঙ্গবন্ধু সাহিত্য পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়। যবিপ্রবি উপাচার্যকে স্থানীয় চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মুন্নাও ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক আব্দুল মজিদ, রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক ড. আনিছুর রহমান, অধ্যাপক ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বfস, অধ্যাপক ড. ইকবাল কবীর জাহিদ, ডিন অধ্যাপক ড. সৈয়দ গালিব, অধ্যাপক ড. মৃত্যুঞ্জয় বিশ্বfস, অধ্যাপক ড. জিয়াউল আমিন, ড. নাসিম রেজা, ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, ড. সুমন চন্দ্র মোহন্ত, ড. মেহেদী হাসান, জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক ড. শেখ মিজানুর রহমান, ড. সিরাজুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. আমিনুর রহমান, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী আহসান হাবীব, শহীদ মসিয়ূর রহমান হলের প্রভোস্ট ড. নাজমুল হাসান, শেখ হাসিনা ছাত্রী হলের প্রভোস্ট ড. সেলিনা আক্তার, বীর প্রতিক তারামন বিবি হলের প্রভোস্ট ড. শিরিন নিগার, মুনশি মোহাম্মদ মেহেরুল্লাহ হলের প্রভোস্ট ড. জাফিরুল ইসলাম, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. আলম হোসেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন, ড. ইঞ্জি., কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি ড. আব্দুর রউফ, কর্মচারী সমিতির সভাপতি শওকত ইসলাম সবুজ প্রমুখ। এ ছাড়া কর্মসূচিসমূহে যবিপ্রবি ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আফিকুর রহমান অয়ন, শহীদ মসিয়ূর রহমান হলের সভাপতি বিপ্লব দে শান্ত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা, নাজমুস সাকিবসহ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা, সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোসাব্বির হোসাইন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসাইন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here