বেনাপোলে আবাসিক হোটেলে ৫ জন করোনা পজিটিভে আক্রান্ত

0
55

বেনাপোল প্রতিনিধি

ভারতে করোনা ভাইরাস ( কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতি অবনতির কারনে বাংলাদেশের স্থল সীমান্ত বন্ধ রয়েছে। তবে যারা সে দেশের ভ্রমন, ব্যবসা বানিজ্য, চিকিৎসা সহ নানাবিধ কাজে যেয়ে আটকা পড়েছিল তারা বিশেষ অনুমতি সাপেক্ষে দেশে প্রবেশ করছে। তাদের এই ফেরা নিয়ে আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট বেনাপোল স্থল বন্দর এলাকা অত্যান্ত ঝুঁকিতে রয়েছে। এই পথে আসা যাত্রীদের সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখছে প্রশাসন।

বেনাপোলের ১৩ টি আবাসিক হোটেল সহ যশোর শহরের বিভিন্ন হোটেলে এসব যাত্রীরা থাকছে। এরই মধ্যে আজ বেনাপোলে দুটি হোটেলে ৫ জন করোনা পজিটিভ সংক্রামনে আক্রান্ত হয়েছে। এ খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ায় সাধারন মানুষ আতঙ্কগ্রসস্থ হয়ে পড়েছে। এর আগে গত মে মাসে বেনাপোল শহরের আশে পাশে ১১ জন করোনা পজিটিভ সংক্রামনে আক্রান্ত হয়েছে।

বেনাপোলের মৌ হোটেল ও নিশাধ নামে দুটি হোটেলে করোনা পজিটিভে আক্রান্ত হয়েছে ৫ জন। এর মধ্যে নিশাধ হোটেলে পিরোজপুর জেলার জয় হালদার (৪০) রক্তিম (৫) ও মনিকা বৈরাগী (৩২) মৌ হোটেলে খুলনার জয়ন্তী রানী (৩২) ও রিম্পা বশাক (৫৫)।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আশাদুজ্জামান আশা বলেন,সীমান্ত শহর বেনাপোল। এই শহরে বৈধ পাসপোর্ট যাত্রী ছাড়াও অবৈধ পথে অনেক বাংলাদেশী নাগরিক প্রবেশ করে। এরা বর্তমান সময়ে দেশে আসায় এবং পাসপোর্ট যাত্রীদের হোটেলে রাখায় বেনাপোল এর মানুষ শঙ্কিত। এছাড়া যারা ভারত থেকে আসছে তাদের এই শহরের আবাসিক হোটেলে রাখলেও নেই কোন সু পরিকল্পনা। এরা হোটেল থেকে নেমে ঘোরা ফেরা ও কেনাকাটা করে আবার হোটেলে প্রবেশ করছে। এদের অবাধে ঘোরা ফেরার কারনে এই শহরে আশঙ্কজনক হারে করোনা সংক্রমণ জীবানু ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন এর স্বাস্থ্য কর্মী হাসান শিমুল ও মামুনুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন যারা ভারত থেকে আসছে এবং করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে আসছে তাদের বাংলাদেশেও পরীক্ষা নিরিক্ষা করা হচ্ছে।

যে পাচঁজনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে এরা গত ১৮ তারিখে বেনাপোলে প্রবেশ করে। এসব যাত্রীদের ওই আবাসিক থেকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here