মালিতে অভ্যুত্থানের নেতাই অন্তর্বতী প্রেসিডেন্ট

0
35

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মালির সাংবিধানিক আদালত দেশটির সাম্প্রতিক অভ্যুত্থানের নেতা আসিমি গোইটাকে অন্তর্র্বতী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেছে। গত বছর আগস্টে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বুবাকার কেইটার বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থানেও নেতৃত্বে ছিলেন তিনি।
চলতি সপ্তাহে মালিতে নতুন করে সামরিক অভ্যুত্থানের নেতৃত্ব দেন গোইটা। অভ্যুত্থানের আগে, তিনি দেশটির উপ-রাষ্ট্রপতি ছিলেন।
মালির রাজধানী বামাকোতে অবস্থিত সাংবিধানিক আদালত আসিমি গোইটার নাম অন্তর্র্বতী প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করলে সেই পদের শপথ নেন গোইটা।
এর আগে, গত বছর আগস্টে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বুবাকার কেইটার বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থানেও নেতৃত্বে ছিলেন গোইটা। সেই সময় প্রেসিডেন্ট হন সদ্য অপসারিত বাহ এন-দাও। সোমবার গোইটার নির্দেশে এন-দাও ও প্রধানমন্ত্রী মোক্তার ওউয়ানে গ্রেফতার হন।
বুধবার গ্রেফতার হওয়া দুই নেতাই পদত্যাগ করেন ও মুক্তি পান।
শুক্রবার মালির শীর্ষ আদালত জানায় দেশে নেতৃত্বের সর্বোচ্চ আসনে, অর্থাৎ প্রেসিডেন্ট পদে বসবেন গোইটা। ‘‘অন্তর্র্বতী প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাষ্ট্রের প্রধান’ হবেন গোইটা এবং ‘‘রাষ্ট্রের ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া নিশ্চিত” করবেন তিনি, জানায় আদালত।
ইকোওয়াসের সাথে গোইটার বিরোধ
এন’দাও ও ওউয়ানের অপসারণ নতুন করে মালির গণতান্ত্রিকীকরণে আঘাত হেনেছে। ফেব্রুয়ারিতে দেশটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।
গোইটার নেতৃত্বকে ইকোওয়াস বা ইকোনমিক কমিউনিটি অফ ওয়েস্ট আফ্রিকান স্টেসস ভালো চোখে দেখছে না। ইকোওয়াসের পরামর্শ ছিল গত অভ্যুত্থানের পরেই ক্ষমতা হস্তান্তর করে গণতান্ত্রিক সরকার গঠনের পক্ষে।
গত অক্টোবরে ইকোওয়াসের সাথে মালির একটি সমঝোতা হয়। সে অনুযায়ী, দেশটিতে কোনো ভাবেই উপ-রাষ্ট্রপতির হাতে ক্ষমতা তুলে দেওয়া যাবে না।
কিন্তু শুক্রবার ইকোওয়াসের সদস্য রাষ্ট্রগুলির প্রধানদের একটি বৈঠকের পরেই মালির আদালত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে।
গত কয়েক মাস ধরে মালিতে সামরিক শাসন চলছে। এতে প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়েছে ‘ইসলামিস্ট’ বিদ্রোহী গোষ্ঠীদের সরানোর প্রক্রিয়া।
নতুন প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার গোইটা জানান, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করবেন তিনি। এই পদে একজন বলিষ্ঠ নেতাকে দেখতে চান বলেও উল্লেখ করেন গোইটা।
তিনি বলেন, ‘‘আগামী কয়েকদিনের মধ্যে যিনি প্রধানমন্ত্রী হবেন, তিনি বিভিন্ন গোষ্ঠীগুলোর সাথে আলোচনা করবেন।”
সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here