ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদা চেয়ে ২০ হাজার টাকা ছিনতাই, চাঁদাবাজ গ্রেফতার

0
106

বিশেষ প্রতিনিধি

একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর কাছে আড়াইলাখ টাকা চাঁদাদাবি করে চিহ্নিত চাঁদাবাজরা সন্ধ্যারাতে গতিরোধ করে মারপিট পূর্বক নগদ ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে বাকী টাকা দুই দিনের মধ্যে সময় বেঁধে দিয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় চাঁদাবাজ লিটন ওরফে হাঁস লিটনকে গ্রেফতার করেছে। সে যশোর সদর উপজেলার বিরামপুর গ্রামের মৃত জলিল ড্রাইভারের ছেলে। এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় তিন চাঁদাবাজের নামসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২/৩জন উল্লেখ করে মামলা হয়েছে।

মামলায় আসামীরা হচ্ছে, লিটন ওরফে হাঁস লিটন ছাড়াও, সদর উপজেলার শানতলার মৃত নওশের আলী মন্ডলের ছেলে ফয়সাল সম্রাট, নতুন শানতলার মৃত শাখাওয়াত আলী ওরফে শওকতের ছেলে দাউদ হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন।

যশোর সদর উপজেলার নতুন শানতলার হাজী আব্দুল মান্নানের ছেলে মোহাম্মদ আলী শনিবার ২৯ মে দুপুরে কোতয়ালি মডেল থানায় উল্লেখিত চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, তিনি শানতলা পেপসি কোম্পানীর ভিতর আদনান ফিডের কাছ থেকে বস্তা ক্রয় করে ব্যবসা করে। উক্ত আসামীরা তার কাছে বিভিন্ন সময় আড়াইলাখ টাকা চাঁদা দাবি করে বলে তাদের দাবীকৃত চাঁদা না দিলে ব্যবসা করতে দেবেনা। এক পর্যায় তাকে খুন জখমের ও প্রাণ নাশের হুমকী দেয়।

গত শুক্রবার ২৮ মে রাত সোয়া ৮ টায় মোহাম্মদ আলী শানতলা পেপসি কোম্পানীর ভিতরে তার ক্রয়কৃত আম ও কাঠাল ফল দেখাশুনা করে বাড়িতে ফিরছিল। রাত সাড়ে ৮ টায় সদর উপজেলার বিনোদিয়া পার্কের বিপরীত ক্ষিতিবদিয়া মোড়ে রেলক্রসিংয়ের পশ্চিম পাশের পৌছালে উক্ত আসামীরা তার গতিরোধ করে।

গতিরোধ করে তার কাছে তাদের দাবিকৃত আড়াইলাখ টাকা চাঁদা চায়। চাঁদাবাজদের দাবিকৃত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে মোহাম্মদ আলীকে মারপিটের এক পর্যায় লিটন ওরফে হাঁস লিটন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর কাছে থাকা নগদ ২০ হাজার জোর পূর্বক কেড়ে নেয়। কেড়ে নেওয়ার পর স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে চাঁদাবাজরা প্রান নাশের হুমকীসহ বাকী টাকা ২ দিনের মধ্যে দেওয়ার হুমকী দেয়।

এ ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ শনিবার ২৯ মে দুপুরে যশোর পালবাড়ী মোড় থেকে চাঁদাবাজ লিটন ওরফে হাঁস লিটনকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here