যশোরে সম্মিলনী মহিলা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতারনা ও জালিয়াতি অভিযোগ

0
70

বিশেষ প্রতিনিধি

যশোর সদর উপজেলার মাহিদিয়া সম্মিলনী মহিলা আলিম মাদ্রসার অধ্যক্ষ ফারুক হুসাইনের নামে প্রতারণা ও জালিয়ালিতর অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার ঝিকরগাছার মির্জাপুর গ্রামের সলেমান দফাদারের ছেলে মাহাবুবুর জামান বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাইফুদ্দীন হোসাইন অভিযোগে তদন্ত করে পিবিআইকে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েচেন।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, মাহাবুবুর জামান ওই মাদ্রাসার রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক পদে শিক্ষাকতা করে আসছেন। ২০২০ সালে মাদ্রাসাটি এমপিও ভুক্ত হয়। একই বছর এ মাদ্রাসায় বিজ্ঞান বিভাগ খোলা হয়। বিভাগ খোলার নিয়ম নীতির তোয়াক্তা না করে অধ্যক্ষ নিবন্ধন বিহীন তিন জন প্রভাষক নিয়োগ দেন।

zমপিওভুক্ত হওয়ার আগে এরা কোনদিন মাদ্রাসায় আসেননি। এছাড়া নিবন্ধন বিহীন আরবি ও ইংরেজি প্রভাষকরা প্রতারণার মাধ্যমে সরকারি নিয়মিত বেতন ভাতা ভোগ করছেন।

মাদ্রসা এমপিও ভুক্তি করার কথা বলে অধ্যক্ষ বাদী মাহাবুবুর জামানের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়েছেন। এরপরও তার চাকরি বহাল থাকা অবস্থায় রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগে শারমিন আক্তারকে অবৈধ ভাবে প্রভাষক পদে নিয়োগ দিয়েছেন অধ্যক্ষ।

গত ২১ মে তিনি অধ্যক্ষের কাছে তার বেতনের টাকা চাইলে টাকা না দিয়ে তাকে মাদ্রসায় আসতে নিষেধ করেন। মাহাবুবুর জামান অধ্যক্ষের কাছে বাদ দেয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি তাকে গালিগাজা ও হুমিকি ধামকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here