কপিলমুনি ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

0
41

কপিলমুনি প্রতিনিধি
খুলনার পাইকগাছায় কপিলমুনি ইউপি সচিব আ. গণি গাজীর বিরুদ্ধে ষড়যন্তের অভিযোগ উঠেছে। এ সিনিয়ার সচিব বিরুদ্ধে মৃত্যু রেজিষ্ট্রারে নাম সংশোধনের জন্য অর্থগ্রহণের অভিযোগ করলেও অভিযোগকারী সঠিক করে বলতে পারেনি কখন, কত টাকা নেওয়া হয়েছে। ইউপি’র নাছিরপুর গ্রামের জিয়াউর রহমান ২২এপ্রিল উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগে উল্লেখ, তার পিতা শেখ নুর ইসলাম ২৩ ফেব্রুয়ারী মৃত্যুবরণ করেন। এসময় সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য মৃত্যু রেজিষ্ট্রারে তার পিতার নাম অন্তভূক্ত করেন। পরবর্তীতে পিতার মৃত্যু সনদ গ্রহণের সময় নামের স্থলে তথ্যগত অসঙ্গতি দেখতে পান। তখন পরিষদের মৃত্যু রেজিষ্ট্রারে তার পিতার নাম সঠিক করে পূর্ণাঙ্গ ভাবে লেখার জন্য ইউপি সচিবকে জানান। এমতাবস্থায় ইউপি সচিব আ. গণি গাজী ইউএনও অফিসের দোহায় দিয়ে তার কাজ থেকে ৭শত টাকা গ্রহণ করেন।
গত ২০ এপ্রিল বেলা ২.৩০ মিনিটের দিকে পরিষদ প্রাঙ্গণে গেলে তাঁকে ইউপি সচিব অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। অভিযোগকারী জিয়াউর রহমান সনদ দেখিয়ে বলেন, তার পিতার মৃত্যু সনদে সম্পূন্ন নাম আসেনি। তবে কত টাকা, কখন, কত তারিখ ঘটনা বা কেউ জানে কিনা এমন সব প্রশ্নে বলেন রেখা আছে।
ইউপি সচিব আ. গণি গাজী বলেন, মিথ্যা, ষড়যন্ত্রমূলক ও ভিত্তিহীন অভিযোগ। তার সাথে আমার কোনো আর্থিক লেনদেন ও দুর্ব্যবহারের অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দ্দার বলেন, পরিষদের রেজিষ্ট্রারে মৃত্যু ব্যক্তির নাম সংশোধনের ক্ষেত্রে টাকা নেওয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না। সিনিয়র এ ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী ও উন্ধনদাতাকে খুঁজে বেরকরতে সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সচেত ইউনিয়নের সাধারন মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here