শার্শায় বাড়ির প্রাচীর ভেঙ্গে স্বর্ণালংকার লুট ও মারধরের অভিযোগ আপন সহদরেরর বিরুদ্ধে

0
28

বেনাপোল প্রতিনিধি
আপন ভাইয়ের বাড়ির প্রাচীর ভেঙ্গে বেঁধে রেখে মারধর করে স্বর্ণালংকার লুটটপাট করার অভিযোগ উঠেছে। শার্শার আমলাই গ্রামের ইমাম হোসেন তার সহদর আলতাফ হোসেনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছে। এ বিষয় নিয়ে শার্শা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ভুক্তভোগী ইমাম হোসেন আমলাই গ্রামের ফুল বারি বিশ্বাসের ছেলে। প্রাচীর ভেঙ্গে দিয়েছে একই পিতার ছেলে আলতাফ হোসেন তার সহদর।
ভুক্তভোগি ইমাম হোসেন বলেন সে দীর্ঘ দিন বিদেশ থাকত। বাড়িতে এসে সে রাস্তার পাশে সরকারী জায়গা ভরাট করে রাস্তা বানিয়েছে। তার বড় ভাইও সরকারী জয়াগা ভরাট করে রাস্তা বানায়। আলতাফ হোসেনের বাড়ির সামনেও রয়েছে একই রকম গর্ত। সে ওই গর্ত ভরাট না করে সন্ত্রাসী গোলাম হোসেন, ও খাদিজা বেগম সহ কয়েকজনকে সাথে নিয়ে আমার প্রাচীর ভেঙ্গে দেয়। এতে তার প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। এছাড়া তার বিদেশ থেকে আনিত দেড়লক্ষ টাকার স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় আমাকে বেধে রেখে। ইমাম হোসের এর স্ত্রী হাসিনা খাতুন বলেন, আগে আমার ভাসুর আলতাফ ডাকাতি করত। এখন সে যশোরে মহুরির কাজ করে। সে আমার বাড়ির নিরাপত্তার পাঁচলি ভেঙ্গে মারধর করে এবং স্বামীকে বেঁধে রেখে গহনা লুট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে আমরা শার্শা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
বিষয়টি জানতে সরেজমিন আলতাফ এর বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। এবং তার কোন মোবাইল নাম্বারও ওই বাড়ির সদস্যরা দেয়নি। স্থানীয় জনৈক এক নারী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন আলতাফ আগে ডাকাতি করত। সে গ্রামে খারাপ লোক হিসাবে পরিচিতি।
এ ব্যাপারে শার্শা থানার এসআই সেলিম হোসেন বলেন, একটি অভিযোগ দায়ের করেছে ইমাম হোসেন। বিষয়টি মিমাংসার জন্য শনিবার দুই পক্ষ বাঁগআচড়া পুলিশ ফাঁড়িতে বসার কথা আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here