যশোরে স্ত্রীকে মারপিট করার চেষ্টা, বোমাসহ দুলাভাই গ্রেফতার

0
11

বিশেষ প্রতিনিধি
বহু বিয়ের নায়ক মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুর শারিরীক ও মানুষিক নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচার জন্য বাপের বাড়িতে চলে আসায় বাপের বাড়িতে স্ত্রীকে মারপিটের উদ্যোগ নিলে প্রতিবাদ করায় প্রাণ নাশের হুমকী ও বোমা নিক্ষেপ করার ঘটনায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ নির্যাতনকারী মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুকে গ্রেফতার করেছে। সে যশোর সদর উপজেলার রামনগর বিহারী কলোনীর মোতালেব হোসেন দুলালের ছেলে।
সদর উপজেলার রামনগর বিহারী কলোনীর শওকত আলীর ছেলে মুরাদ হোসেন বাদি হয়ে সোমবার বিকেলে কোতয়ালি মডেল থানায় দুলাভাই মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন উল্লেখ করে মামলা করেন।
মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, বিগত ১৭/১৮ বছর পূর্বে তার বোন আফসানা পারভীনের সাথে মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুর বিয়ে হয়। বিয়ের পর ঘর সংসার করাকালে আফসানা পারভীনের গর্ভে তিনটি মেয়ে সন্তান জম্ম গ্রহন করেন। মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পু প্রথম স্ত্রীর অমতে আরো ২টি বিয়ে করে ইতি পূর্বে। উক্ত বিষয়টি আফসানা পারভীন ও মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুর মধ্যে সব সময় অশান্তি লেগেই থাকতো। পাপ্পু প্রায় সময় আফসানা পারভীনকে শারিরীক ও মানুষিক নির্যাতন করতো।
গত ৩ মে সোমবার সকালে আফসানা পারভীন স্বামীর বাড়ি হতে বাপের বাড়িতে যেয়ে অবস্থান কালে সকাল ৮ টায় পাপ্পুসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন মুরাদ হোসেনের বাড়িতে ঢুকে আফসানা পারভীনকে মারধোর করার চেষ্টা করে। ভাই মুরাদ হোসেনসহ পরিবারের লোকজন প্রতিবাদ করলে পাপ্পু মুরাদ হোসেনকে জানে মেরে ফেলার হুমকী দেওয়ার এক পর্যায় একটি হাত বোমা নিক্ষেপ করে। বোমাটি অবিস্ফোরিত হওয়ায় পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে বোমাটি উদ্ধার করে। পরে এ ব্যাপারে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা হলে সোমবার রাত ৯ টার পর মোস্তাক আহম্মেদ পাপ্পুকে তার বাড়ি হতে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার ৪ মে পাপ্পুকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here