যশোরে ফল ব্যবসায়ীকে মারপিট, আটক ১

0
67

বিশেষ প্রতিনিধি
পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও তাদের সহযোগী অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা বাঙ্গী বিক্রেতা আব্দুর রাজ্জাক (৪৫) ও তার স্ত্রী মোছাঃ জাহানারা বেগম এবং সঙ্গী আলমগীর হোসেনকে মারপিট করে নগদ ৮ হাজার টাকা ও ভাংচুর করে ২৫ হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করেছে। এ ঘটনায় বাঙ্গী বিক্রেতা আব্দুর রাজ্জাক বাদি হয়ে শনিবার দিবাগত গভীর রাতে শাহিন মোল্যাসহ তার অজ্ঞাতনামা ৩/৪জনের বিরুদ্ধে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ শাহিন মোল্যাকে গ্রেফতার করেছে। সে যশোর শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়ার ময়েন মোল্যার ছেলে।
যশোর শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়ার মৃত আজাহার ব্যাপারীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক মামলায় উল্লেখ করেন, শাহিন মোল্যার সাথে দীর্ঘদিন পুর্ব হতে শত্রুতা ও দ্বন্দ্ব চলে আসছে। শাহিন মোল্যা আব্দুর রাজ্জাকসহ তার পরিবার, সঙ্গীয় আলগমীর হোসেনসহ তার পরিবারের সদস্যদের মারপিট খুন জখমসহ বড় ধরনের ক্ষতি করার জন্য ষড়যন্ত্র করে আসছে।
শনিবার ১ মে বেলা ১১ টায় আব্দুর রাজ্জাক শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়াস্থ জনৈক কালুর মাংসের দোকানে সামনে ভ্যানে করে বাঙ্গী বিক্রয় করার সময় উক্ত শাহিন মোল্যা তার দোকানে এসে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কথা কাটাকটির এক পর্যায় আব্দুর রাজ্জাকের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে গালিগালাজ করে। এক পর্যায় অর্তকিত ভাবে হামলা চালিয়ে ধারালো দা দিয়ে আঘাত করে। এলোপাতাড়ীভাবে মারপিটের এক পর্যায় গলা ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দিয়ে স্ত্রী জাহানারা বেগম সঙ্গী আলমগীর হোসেন ঠেকাতে এলে তাদেরকে মারপিট করে শ্লীলতাহানী ঘটায়।
এ সময় আব্দুর রাজ্জাকের দোকানের ক্যাশ বাক্স নগদ ৮ হাজার টাকা ও দোকানের থাকা মালামাল ভাংচুর করে ২৫ হাজার ক্ষতি সাধন করে। স্থানীয় লোকজন আব্দুর রাজ্জাককে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করার পর পুলিশ শাহিন মোল্যাকে গ্রেফতার করে। রোববার তাকে আদালতে সোপর্দ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here