শ্রীলঙ্কায় করোনার আরও শক্তিশালী স্ট্রেইন শনাক্ত

0
24

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
শ্রীলঙ্কায় করোনাভাইরাসের আরও শক্তিশালী একটি স্ট্রেইন শনাক্ত হয়েছে। অধিক সংক্রামক নতুন এই স্ট্রেইনটি বাতাসের মাধ্যমেও সংক্রমণ ছড়াতে পারে।
কলম্বোর একজন শীর্ষস্থানীয় ইমিউনোলজিস্ট জানিয়েছেন, শ্রীলঙ্কায় এর আগে পাওয়া করোনার অন্য যে কোনও স্ট্রেইনের চেয়ে এটি শক্তিশালী।
শ্রী জয়াবর্ধনপুর ইউনিভার্সিটির ইমিউনোলজি অ্যান্ড মলিকিউলার সায়েন্সেস বিভাগের প্রধান নীলিকা মালাভিগে। তিনি বলেছেন, অত্যন্ত রূপান্তরযোগ্য এই স্ট্রেইনটি প্রায় ঘণ্টাখানেক বায়ুবাহিত অবস্থায় থাকতে পারে এবং এটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে।
তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের এই ধরনটি এই দ্বীপে এখন পর্যন্ত পাওয়া সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ক্ষমতাসম্পন্ন। নতুন এই স্ট্রেনটি বায়ুবাহিত। এর ফোঁটাগুলো প্রায় ঘণ্টাখানেক বাতাসে ভেসে থাকতে সক্ষম।
স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের আশঙ্কা, গত সপ্তাহে স্থানীয় নববর্ষ উদযাপনের পর নতুন ধরনের ভাইরাসটি আরও ছড়িয়ে পড়ছে। ওই উদযাপন থেকে অপেক্ষাকৃত কম বয়সীদের অনেকের মধ্যেই ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে।
জনস্বাস্থ্য পরিদর্শক উপুল রোহানা বলেন, পরবর্তী দুইটি ইনকিউবেশন পিরিয়ডে ভাইরাসটির তৃতীয় ঢেউ তৈরি হতে পারে। আগামী ২-৩ সপ্তাহের মধ্যেই বাস্তব চিত্র সামনে আসবে।
এদিকে লঙ্কান সরকারের কোভিড প্রতিরোধ মন্ত্রণালয় নতুন নির্দেশনা জারি করেছে যা আগামী ৩১ মে পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।
মধ্য এপ্রিলে স্থানীয় নববর্ষ উদযাপনের আগে দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণ কমবেশি ১৫০-এর মতো ছিল। এখন দৈনিক সংক্রমণ বেড়ে ৬০০-তে দাঁড়িয়েছে।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যসেবা ক্রমেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে।
আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস-এর হিসাব অনুযায়ী, শ্রীলঙ্কায় এখন পর্যন্ত এক লাখ এক হাজার ৩৭৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৬৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
স্বাস্থ্যসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. আসেলা গুণাওয়ার্দেনা বলেন, হাসপাতালগুলোতে এখনও কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত আইসিইউ রয়েছে। তবে সংক্রমণ এড়াতে স্বাস্থ্য বিষয়ক নির্দেশিনাগুলো অনুসরণ করা জরুরি।
তিনি বলেন, ‘আগে উপসর্গগুলো খুব বেশি স্পষ্ট ছিল না। এখন এগুলো আরও স্পষ্ট এবং তরুণদের এতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক বেশি।’ সূত্র: ইন্ডিয়া ডটকম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here