আশাশুনিতে পাওনা টাকা আদায়ে একজনকে আটকে রাখার অভিযোগ

0
30

এম এম নুর আলম, আশাশুনি
আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটিতে পাওনা টাকা না দেওয়ায় একজনকে পথ থেকে ধরে আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আটককৃতকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌছে দিয়েছেন।
কাদাকাটি গ্রামের রণজিৎ মন্ডলের পুত্র গৌতম রাজ মিস্ত্রীর কাজ করেন। তার প্রতিবেশী মৃত আ. রউফের পুত্র ইস্রাফিলের বাড়ির কাজের সেনিটারীর জন্য সীট/তক্তার প্রয়োজন হলে গৌতম ইস্রাফিলের কাছ থেকে ১৮ মাস পূর্বে ১০ হাজার টাকা হাওলাত নিয়ে সেগুলো ক্রয় করেন। শর্তছিল টাকা ফেরৎ দেবে এবং তার কাজের সময় সীট/তক্তার ভাড়া নেবেনা। কিন্তু গৌতম তার কাজও করে দেয়নি এবং টাকা ফেরৎ দেয়নি। এনিয়ে দু’জনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।
গৌতম জানান, তিনি ইস্রাফিলের কাছে ১৪০০০ ও ইস্রাফিলে তার কাছে ১০০০০ টাকা পাবে। টাকা আদায়ের লক্ষ্যে থানায় জিডি করলে ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি স্থানীয়ভাবে ফয়সালা করার জন্য থানা থেকে সময় চেয়ে নেন। কিন্তু কোন ফয়সালা হয়নি। ই¯্রাফিল জানান, গৌতম তার কাছে কোন টাকা পাবে না, সে (ই¯্রাফিল) তার পাওনা ১০ হজার টাকা আদায়ের চেষ্টা করলে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে তার বিরুদ্ধে জিডি করেছিল। ইউপি চেয়ারম্যান উভয় পক্ষকে ডাকলেও গৌতম উপস্থিত হয়নি।
বরং দীর্ঘদিন বাইরে থাকার পর বাড়িতে ফিরলেও টাকা পরিশোধে কোন পদক্ষেপ নেয়নি। রবিবার সকালে তাকে পথে পেয়ে ডেকে আটকে রেখে মেম্বার আবু হাসান বাবুকে খবর দিলে মেম্বার হাসান ও হরেকৃষ্ণ ঘটনাস্থলে এসে তাকে ছেড়ে দিয়ে সোমবার বিকালে বসে ফয়সালা করবেন বলে চলে যান। অপর দিকে গৌতম দাবী করেন, তাকে আটকে হাত-পা ব্যবহার করে লাঞ্চিত করা হয়। খবর পেয়ে এএসআই পূর্ণনন্দ হরি ও এএসআই নাজিম উদ্দিন ঘটনাস্থানে পৌছে গৌতমকে থানায় গিয়ে অভিযোগ করতে বলে যান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here