চৌগাছায় ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়ি ফেরার পথে প্রকাশ্য প্রবাসীর লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

0
120

শ্যামল দত্ত, চৌগাছা
যশোরের চৌগাছায় ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বাড়ি ফেরার পথে প্রকাশ্য দিবালোকে এক দুবাই প্রবাসীর ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে দৃর্বৃত্তরা। ভুক্তভোগী প্রবাসী আরাফাত হোসেন আলতাফ উপজেলার পাশাপোল ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত লুৎফর বিশ^াসের ছেলে।
মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে শহরের ইজিবাইক স্ট্যান্ডে (চৌগাছা-ঝিকরগাছা সড়কে) এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগি আরাফাত হোসেন আলতাফ জানান, ১০ দিন আগে তিনি দুবাই থেকে দেশে ফিরেছেন। মঙ্গলবার স্ত্রীসহ তিনি ইসলামি ব্যাংকের চৌগাছা শাখা থেকে ১ লাখ ১৫ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। বাজারে কিছু কেনাকাটা শেষে উপজেলা শহরের মাছবাজার পার হয়ে (চৌগাছা-ঝিকরগাছা সড়কে) ইজিবাইক স্ট্যান্ডে একটি ভ্যানে উঠেন। তখন তার স্ত্রীর ব্যাগে ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ছিল। ভ্যানে ওঠার সাথে সাথেই স্ট্যান্ডে থাকা চাঁদপুর গ্রামের খালিদ, মনমথপুর গ্রামের ফারুক ও মোজামসহ চারজন তাদেরকে বলেন, “তোরা ভ্যানে যেতে পারবি না।” এক পর্যায়ে তারা আরাফাত ও তার স্ত্রীর উপরে আক্রমন করে আরাফাত হোসেনকে মারপিট করতে করতে মাছ বাজারের দিকে নিয়ে যায়। আরাফাতের স্ত্রীও স্বামীর মার বাচাতে তাদের সাথে সাথেই মাছবাজারে যায়। এরই মধ্যে আরাফাতের স্ত্রীর ব্যাগে থাকা ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা। টাকা ছিনিয়ে নিয়ে দূর্বত্তরা ওই স্থান থেকে পালিয়ে যায়। আরাফাত হোসেন জোর দিয়ে বলেন ওই চারজন ছাড়া আমাদের আর কেউ মারধরও করেনি। আমাদের কাছেও আসেনি। ওই চারজনই আমার টাকা ছিনতাই করেছে।
দূর্বৃত্তদের হাত থেকে ছাড়া পাওয়ার পরপরই আলতাফ ও তার স্ত্রী চৌগাছা থানায় অভিযোগ করতে যান। ঘটনা শুনে চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজের নির্দেশে পুলিশের একধিক দল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছায়। প্রবাসী আলতাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দেন। এরপর সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিট পর্যন্ত ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজের নেতৃত্বে পুলিশ ওই এলাকায় গিয়ে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বিষয়টি নিশ্চিত হন। এরপরই পুলিশ আসামীদের ধরতে সর্বাত্মক অভিযান শুরু করে। এ রিপোর্ট লেখার সময় সন্ধ্যা সাতটা ২০ মিনিটে ভুক্তভোগী প্রবাসীকে সাথে নিয়ে পুলিশি অভিযান অব্যাহত ছিল। তবে কোন আসামী আটক হয়নি।
মোবাইল ফোনে ওই প্রবাসীর স্ত্রী বলেন ভাই নিজে চোখে যা দেখেছি এমন এর ভয়াবহতা বর্ণনা করা যাবে না। ওরা আমার স্বামীকে পশুর মত পিটিয়ে আমাদের টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে। কেউ ওদের হাত থেকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ সন্ধ্যা সাতটা ১০ মিনিটে সাংবাদিকদের বলেন, ওই এলাকায় গিয়ে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। ভুক্তভোগিরা স্বামী স্ত্রী ভ্যানে উঠার পরপরই খালিদ, ফারুক, মোজাম এবং লঙ্গিপরা অজ্ঞাত এক ব্যক্তি তাদের সাথে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে প্রবাসীকে মারতে মারতে মাছ বাজারের দিকে নিয়ে যায়। এসময় তার স্ত্রীও তার সাথে সাথেই মার বাচাতে যায়। এরই মধ্যে অভিযুক্তরা ওই প্রবাসীর স্ত্রীর হাতে থাকা ব্যাগ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেয়। তিনি বলেন অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ সর্বাত্মক অভিযান অব্যাহত রেখেছে। যে কোন মূল্যে তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।
এদিকে ওই ইজিবাইক স্ট্যান্ড এলাকার ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন ওই স্থানে সাধারণ মানুষকে হয়রানী ও মারপিট করা নিত্যদিনের বিষয়। সাধারণ মানুষ তাদের ভয়ে সবসময়ই তটস্থ থাকেন। চৌগাছা থানা সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here