বেনাপোলের ত্রাস আশা এখন জেল হাজতে

0
17

বেনাপোল প্রতিনিধি
বেনাপোলে ফেনসিডিল, মদ, গাজা হেরোইন ব্যবাসায়ী এবং চোরাচালন সিন্ডিকেটের মুল নায়ক আশানুর নামে আশা নামে এক ব্যক্তি অবশেষে পুলিশের খাচা থেকে জেল হাজতে। বেনাপোল পোর্ট থানার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ধ্যান্যখোলা গ্রামের আশা বিএনপি থেকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে যোগদান করে মেতে উঠে জমি , হাওড় বাওড় দখলের কাজে। সেই প্রাকৃতিক পরিবশেকে ধ্বংস করে বালু উত্তোলন করে ফসলি জামি বিনষ্ট করছে। আশা এবং তার ভাই মফিজুর রহমান তাদের নামে বাহিনী গড়ে তুলেছে শার্শার একজন শীর্ষ নেতার আশির্বদপুষ্ঠ হয়ে। সম্বপ্রতি সে এলাকার প্রাকৃতিক পরিবেশ নষ্ট করে বালি উত্তোলন করছে। এ নিয়ে প্রকৃতিক পরিবেশ রক্ষাকারী একদল তরুন আশার কাছে বালু উত্তোলনের বিষয় জানতে চাইলে তাদের অকথ্য ভাষা ব্যবহার এবং লাঞ্চিত করে গত বৃহস্পতিবার।
আশা এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে চোরাচালন সহ ইচ্ছা খেয়াল খুশিমত ভুমি দস্যুতাও শুরু করেছে বলে একাধিক অভিযোগ উঠেছে। এসব অভিযোগ গত বৃস্পতিবার থানায় অভিযোগ করেন স্থানীয় কিছু সংবাদকর্মী। তারই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ আশাকে আটক করে আজ রোববার জেল হাজতে পাঠায়। সে শার্শার একজন শীর্ষ জনপ্রতিনিধির মদদে এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।
বাহদুরপুর ইউনিয়নের ধান্যখোলা গ্রামের আমির আলী বলেন, আশা একজন বিএনপি কর্মী ছিল। সে এবং তার ভাই মফিজুর রহমান এলাকায় আরো সন্ত্রাসী কর্মকান্ড প্রসস্ত করার জন্য আশা নামে একটি বাহিনী গড়ে তুলেছে। তার ভাই মফিজুর ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে নৌকা মার্কার বিপরীতে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে আনারস মার্কায় নির্বাচন করে। এই মফিজুর বাহাদুরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক।
হামলার শিকার আশার বালু উত্তোলনের তথ্য সংগ্রহকারীদের একটি ভাইরাল ভিডিও দেখা যায় আশা অকথ্য ভাষায় সাংবাদিক ও পুলিশদের মা বাবা তুলে গালাগালিজ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here