যশোরে নারী ব্যবহার করে এক চক্র বিভিন্ন ব্যক্তিদের ফাঁসানোর চেষ্টা ফাঁস চক্রের সক্রিয় নারী সদস্যসহ গ্রেফতার-২

0
73

বিশেষ প্রতিনিধি
একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র এক নারীকে ব্যবহার করে বিভিন্ন ব্যক্তির সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলে বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও করে কৌশলে চাঁদা দাবি করে ইন্টার নেটে ছবি ছাড়িয়ে দেওয়ার হুমকী দিচ্ছে। পুলিশ প্রতারক চক্রের নারীসহ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, যশোর সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন, বাঘারপাড়া উপজেলার তেলি ধান্যপাড়া গ্রামের বাবলু দফাদারের মেয়ে মোছাঃ স্বপ্না খাতুন। এ সময় তাদের অপরযোগী সদর উপজেলার কচুয়া খালপাড়া গ্রামের মৃত আমজাদ খার ছেলে টুটুল খানসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন রয়েছে ধরা ছোয়ার বাইরে। প্রতারনা ও চাঁদাবাজীর শিকার সদর উপজেলার রুপদিয়া মসজিদ পাড়ার মৃত হাজী ফজলে করিমের ছেলে আকবর আলী বাদি হয়ে সোমবার ৫ এপ্রিল রাতে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন।
মামলায় তিনি উল্লেখ করেন, আসামীরা সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য। আসামীদের মধ্যে নারী সদস্য মোছাঃ স্বপ্না খাতুনের সাথে পরিচয়ের সূত্র ধরে গত ২৮ মার্চ বিকাল ৪ টায় আকবর আলীর রুপদিয়া মসজিদ পাড়ার বাড়িতে আসে। কিছুক্ষণ উক্ত বাড়িতে অবস্থান নিয়ে আকবর আলীর সাথে বিশেষ কায়দায় ছবি তুলে চলে যায়। পরে ওই দিন দিবাগত সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় চক্রের সক্রিয় সদস্য আলমগীর হোসেন টুটুল খানসহ কয়েকজন এসে আকবর আলীর কাছে উক্ত নারীর ছবি দেখিয়ে তার কাছে দেড়লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। টাকা না দিয়ে ছবি ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ছাড়িয়ে ভাইরাল করার হুমকী ধামকী দেয়। অব্যাহতভাবে ওই চক্রটি আকবর আলীর কাছে টাকা চেয়ে হুমকী ধামকী দেওয়ায় তিনি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশ উক্ত আলমগীর হোসেন ও নারী স্বপ্না খাতুনকে গ্রেফতার করে সোমবার ৫ এপ্রিল বসুুন্দিয়া এলাকা থেকে। পরে মঙ্গলবার ৬ এপ্রিল তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here