যশোরে এবার শ্বশুরের বিরুদ্ধে ছেলের বউয়ের যৌন নিপীড়নের অভিযোগ : বৃদ্ধ গ্রেফতার

0
14

বিশেষ প্রতিনিধি
যশোর উপশহর সেক্টর ৭ এলাকার একটি বাসায় শ্বশুরের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলেছে ছেলের বউ। এ ঘটনায় পুলিশ হারুনুর রশিদ (৬৬) নামে এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করে শনিবার আদালতে সোর্পদ করেছে। সে যশোর উপশহর সেক্টর নং ৭ এর বাসা এ/১৫ এর মৃত ওসমন আলী বিশ্বাসের ছেলে। শুক্রবার রাতে ছেলের বউয়ের অভিযোগ মামলা হিসেবে রেকর্ড করেছে পুলিশ।
মামলায় ছেলের বউ (২৭) বলেছেন, আসামী হারুনুর রশিদ তার শ^শুর। শ্বশুরের ৫ম তলা বিশিষ্ট ভবনের চতুর্থতলায় গৃহবধূ তার স্বামী ও সন্তান নিয়ে বসবাস করে। শ^শুর হারুনুর রশিদ ভবনের তৃতীয়তলায় বসবাস করে। গৃহবধূর স্বামী ব্যবসার কাজে বাড়ির বাইরে অবস্থান করার সুযোগে শ্বশুর ছেলের বউকে তার হাত পা ম্যাসেস করার জন্য বারবার অনুরোধ করে। শ্বশুর পিতা সমতুল্য হওয়ায় ভাল মনে করে তাকে অনুমান ২/৩ বছর পূর্ব হতে হাত পা ম্যাসেস করে দেয়। ছেলের বউ অভিযোগ করেন, ম্যাসেস করার সময় শ্বশুর তাকে কু-প্রস্তাব দেয়। কু-প্রস্তাবে রাজি না হলে গৃহবধূকে তার ছেলের সাথে ঘর সংসার করতে দেবেনা বলে এবং বাড়ি হতে তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এক পর্যায় শ^শুর ছেলের বউকে তার নামের বাড়ি দিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখায়। গত ১২ মার্চ দুপুর ২ টায় শ্বশুর হারুনুর রশিদ তার শয়ন কক্ষের মধ্যে খাটের উপর বসা অবস্থায় ছেলের বউকে ডেকে তাকে ম্যাসেস করে দেওয়ার জন্য ছেলের বউকে বলে। ঘরে ঢুকে ছেলের বউ শ্বশুরী কোথায় জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘরে নেই বললে শ্বশুরের উদ্দেশ্যে বুঝতে পেরে ছেলের বউ দৌড়ে ঘর হতে বের হওয়ার সময় শ্বশুর ছেলের বউকে জাপটে ধরে স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। পরনের থ্রীপিস ও ওড়না টানা হেচড়া করে শ্লীলতাহানী ঘটায়। ছেলের বউয়ের চিৎকারে স্বামী ও দেবর এগিয়ে আসলে বিষয়টি দেখে।
অপরদিকে, বৃদ্ধ হারুনুর রশিদ জানান, তার দুই ছেলে দীর্ঘদিন যাবত তাকে জিম্মি করে বাড়িটি নেশার আসরে পরিনত করেছে। গত মাসে উপশহর পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা উক্ত বাড়িতে হারুনুর রশিদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে দুই ভাইকে ও তাদের সহযোগী আরো কয়েকজনকে গ্রেফতার করে। পরে দুই ভাইকে ছেড়ে দেয়। বাকীদের মাদক সেবনের প্রমান পাওয়ায় তাদেরকে আইনের আওতায় নেয়। দুই ছেলের অত্যাচারে বৃদ্ধ হারুনুর রশিদ অতিষ্ঠ। তাকে দুই ছেলে হত্যা করবে বলে হুমকী ধামকী দেয়। বিধায় বৃদ্ধ কোতয়ালি মডেল থানায় ইতিপূর্বে দুই ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ পর্যন্ত দায়ের করেন বলে তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here